যাদবপুরে ডিএসএফের জয়জয়কার,ধাক্কা খেল টিএমসিপি, দ্বিতীয়স্থানে এবিভিপি

আজবাংলা      তিন বছর পর ছাত্র নির্বাচন হয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট গণনা। ক্যাম্পাসে চাপা উত্তেজনা থাকলেও এখনও কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীতে ঘিরে রাখা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। এখনও চলছে গণনা।প্রথমবার নির্বাচনে লড়েই ভালো ফল করল আরএসএস-এর ছাত্র শাখা এবিভিপি। অপরদিকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা শাসকদলের ছাত্র সংগঠন টিএমসিপি-র। বিজ্ঞান বিভাগের কেন্দ্রীয় প্যানেলের নির্বাচনে টিএমসিপি মাত্র ৮ ভোট পেয়েছে। সেখানে ডবলুটিআই প্রার্থীরা পেয়েছে ১০১৩ ভোট। বাম ছাত্র শাখা এসএফআই-এর ঝুলিতে এসেছে ২১৬ ভোট, অর্থাৎ ব্যবধান বিশাল। যাদবপুরের বিজ্ঞান বিভাগে ৩৯টি আসনের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছিল মাত্র ৮টি আসনে। সবকটিতেই জিতেছে উই দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট। তার আগে বাকি আসনগুলিতেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছিল কোনও রাজনৈতিক রং ছাড়াই গঠিত ছাত্র সংগঠন উই দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট। উল্লেখ্য, বিজ্ঞান বিভাগে কোনও পদেই প্রার্থী দেয়নি এবিভিপি। ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে চলছে গণনা। সেখানে অবশ্য দাপট দেখাচ্ছে ডিএসএফ। তবে লড়াই দিচ্ছে আরএসএস-এর ছাত্র শাখা এবিভিপি। অন্যদের পিছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে তাঁরা। অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে এসএফআই ও টিএমসিপি। ভোটের আগেও বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলি এবিভিপি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারবে না বলেই দাবি করেছিল। কিন্তু ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ভোট গোনা শুরু হতেই দেখা গেল তাঁরাই পিছিয়ে পড়েছে। সেখানে ভালোই ভোট টানছে এবিভিপি।