ডাইনি অপবাদ দিয়ে একটি পরিবারকে হেনস্তার অভিযোগ

ডাইনি অপবাদ দিয়ে একটি পরিবারকে হেনস্তার অভিযোগ

 মধ্যযুগীয় বর্বরতা! সম্পত্তি হাতানোর জন্য ডাইনি অপবাদ দিয়ে একটি পরিবারকে হেনস্তার অভিযোগ। তাঁদের বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে, রীতিমতো এলাকাছাড়া করার অভিযোগ। পুলিসে অভিযোগ দায়ের। প্রতিবেশী ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের। গ্রামের শেষপ্রান্তে বসে থাকা, ওই পরিবারকে রাতেই উদ্ধার করেছে পুলিস। ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে, মেদিনীপুর সদর ব্লকের মনিদহ গ্রাম পঞ্চায়েতের নয়াগ্রামে। অভিযোগ, ওই এলাকার রানা পরিবারের এক মহিলাকে ডাইনি অপবাদ দিয়ে, বেশ কয়েকদিন ধরে কয়েকজন অত্যাচার করছিল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর মহিলাকে মারধর করে বাড়ি ছাড়া করে দেওয়া হয়। বিষয়টি স্থানীয় পঞ্চায়েত এবং গুড়গুড়িপাল থানায় জানান পরিবারের সদস্যরা।

ওই পরিবারের এক মহিলা বলেন, "দু'বছর ধরে আমার শাশুড়িকে ওরা ডাইনি বলে হেনস্তা করছে। প্রায় অশান্তি লেগে রয়েছে। মাঝে কিছু দিন চুপ ছিল। আবার শুরু করেছে। গুড়গুড়িপাল থানার পুলিস এসে সমাধান করে গিয়েছিল। তারপরও বৃহস্পতিবার রাতে লাঠি নিয়ে মারতে আসে ওরা। গ্রাম থেকে বের করে দেয়। রাতে আবার পুলিস এসে সামাল দেয়।

আমরা আতঙ্কে রয়েছি।" প্রতিবেশী পতই দোলই, দীনেশ দোলই, নমিতা দোলই, শম্ভু দোলই-সহ ন'জনের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এই বিষয়ে তৃণমূলের জেলা সভাপতি সুজয় হাজরা বলেন, "মূলত সম্পত্তি দখলের জন্যই পরিকল্পিত ভাবে এই অপবাদ দিয়ে অত্যাচার। আমরা শুনেছি। পুলিসকে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছি।"