বিহারের মধুবনীতে আকাশ থেকে পড়া রহস্যময় পাথর ঘিরে কৌতূহলে কৃষকরা

আজবাংলা মধুবনীর ওই এলাকায় গত বুধবার দুপুরে ধানের চারা বসানোর কাজ চলছিল। আচমকা আকাশ থেকে ১৫ কিলোগ্রামের একটি পাথর মাটিতে এসে পড়ে। আর সঙ্গে সঙ্গে ধোঁয়ায় ঢেকে গেল চারিদিক। আতঙ্কে কৃষি জমির মধ্যেই এদিক-ওদিক দৌড়তে শুরু করলেন কৃষকরা।  প্রথমে ভয় পেয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় সবাই। কিছুক্ষণ বাদে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে একটি পাথর পড়ে আছে। আর তার গা দিয়ে হালকা ধোঁয়া বের হচ্ছে। এরপরই কাছে থাকা কাস্তে ও লোহার জিনিস পাথরটিতে ঠেকাতে আটকে যায় সেগুলি। এর মধ্যে চৌম্বকীয় শক্তি আছে দেখে খবর দেওয়া হয় প্রশাসনকে। আর এই পরেই ঘটনাস্থলে এসে পাথরটি উদ্ধার করে পরীক্ষাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। বতর্মানে এটি পাটনা জাদুঘরে রাখা হয়েছে। পাথরটিতে লোহা ঠেকিয়ে পরীক্ষা করেছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারও।এপ্রসঙ্গে মধুবনীর জেলাশাসক শিরসাত কপিল অশোক বলেন, পাথরটি দেখে প্রাথমিকভাবে উল্কা বলে অনুমান করা হচ্ছে। এর মধ্যে চৌম্বকীয় শক্তিও রয়েছে। যদিও পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পেলে এবিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানো সম্ভব হবে।'বিহারের শ্রীকৃষ্ণ বিজ্ঞান কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা ওই পাথরটি পরীক্ষা করে দেখছেন। তাঁদের মধ্যে মধ্যে কেউ কেউ মনে করছেন, এটি উল্কাপিণ্ড। কারণ এই পাথরের গায়ে যেরকম খাঁজ রয়েছে তা একমাত্র উল্কাপিণ্ডেই দেখা যায় সম্ভব।