তিন দশকের নিষেধাজ্ঞা তুলে ১৮ এপ্রিল সিনেমা বা চলচ্চিত্র চালু হচ্ছে সৌদি আরবে

Black-Panther
ব্ল্যাক প্যানথার’।
Black-Panther
ব্ল্যাক প্যানথার’।

আজবাংলা  সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এসপিএ গত বুধবার জানায়, দেশের প্রধান সর্বোচ্চ আর্থিক তহবিল পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (পিআইএফ) এএমসি এন্টারটেইনমেন্ট হোল্ডিংস নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চলচ্চিত্র প্রদর্শনের জন্য একটি চুক্তি সই করেছে।  সৌদি আরবে সাড়ে তিন দশকের নিষেধাজ্ঞা তুলে ১৮ এপ্রিল সিনেমা বা চলচ্চিত্র চালু হচ্ছে। রাজধানী রিয়াদের কিং আবদুল্লাহ ফিন্যান্সিয়াল জেলায় গানের কনসার্টের জন্য বানানো হলে এদিন প্রথম সিনেমা প্রদর্শন করা হবে। একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, প্রথম সিনেমা হবে মারভেলের সুপারহিরো ‘ব্ল্যাক প্যানথার’। সৌদি আরবের তথ্য মন্ত্রণালয়ের সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল কমিউনিকেশন এক বিবৃতিতে জানায়, ১৮ এপ্রিল রিয়াদে সিনেমা প্রদর্শিত হবে। দুই পক্ষ আগামী পাঁচ বছরে সৌদি আরবের ১৫টি শহরে ৪০টি প্রেক্ষাগৃহ নির্মাণের আশা করছে। আর পরের সাত বছরে সৌদির ২৫টি শহরে ৫০ থেকে ১০০টির মতো প্রেক্ষাগৃহ স্থাপন করা হবে। সৌদি আরবের সংস্কৃতি ও তথ্যমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছেন, সিনেমা চালুর বিষয়টি স্থানীয় অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করতে সাহায্য করবে। বিনোদন খাতে খানাপ্রতি ব্যয় বাড়বে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। এএমসি এন্টারটেইনমেন্ট হোল্ডিংসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যাডাম অ্যারন এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, কিং আবদুল্লাহ ফিন্যান্সিয়াল জেলায় গানের কনসার্টের জন্য বানানো হলে প্রথম সিনেমা প্রদর্শিত হবে। সেখানকার প্রধান থিয়েটারে ৫০০টি চামড়ার আসন থাকবে। থাকবে অর্কেস্ট্রা, ঝুল বারান্দা, মার্বেলের প্রক্ষালনকক্ষ। মধ্য গ্রীষ্ম নাগাদ আরও তিনটি পর্দা যুক্ত হবে। এটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে চাকচিক্যপূর্ণ সিনেমা থিয়েটার।