মানসিক শান্তি পেতে চান জেনে নিন রাশি অনুযায়ী শান্তি পাওয়ার উপায়

আজবাংলা   ধর্মীয় বিশ্বাসের মাধ্যমে প্রায়শঃই মানব জীবনের যাবতীয় সমস্যাসহ অন্য ব্যক্তির সাথে পরস্পর বিপরীতমুখ চিন্তা-ভাবনাকে চিহ্নিত ও পরিচিতি ঘটানোর সুযোগ তৈরী করা হয়।  অভ্যন্তরীণ শান্তি বা মানসিক শান্তি বলতে মানসিক ও আধ্যাত্মিকভাবে অর্জিত শান্তিকে বুঝায়। তবে জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, কোন ব্যক্তি কীসের মাধ্যমে মানসিক শান্তি পাবেন তা জানা সম্ভব।সেই জাতক বা ব্যক্তির রাশি অনুযায়ী জেনে নেওয়া যায় মানসিক ভাবে শান্তি পাওয়ার জন্য কোন রাশির কী করা উচিৎ। মেষ: মেষ রাশির জাতক-জাতিকারা মানসিক শান্তি তখনই পান, যখন তাঁরা নিজের সঙ্গে বেশির ভাগ সময় কাটাতে পারেন। নিজের মধ্যে মগ্ন থেকেই এঁরা সবথেকে বেশি খুশি হন।   বৃষ: বৃষ রাশির মানুষ প্রাণায়াম করার মধ্যে মানসিক শান্তি খুঁজে পান। ধ্যান এঁদের অন্যতম শান্তির মাধ্যম।   মিথুন: মিথুন রাশির জাতক-জাতিকাদের জলে থাকাটাই মানসিক শান্তির একমাত্র উপায়, তা স্নান হোক বা সাঁতার কাটা। কর্কট: কর্কট রাশির মানুষরা নিজেদের পরিবারকে সবথেকে বেশি সুখী দেখতে চান, এতেই এঁদের শান্তি। সিংহ: সিংহ রাশির জাতক-জাতিকারা খুব ভ্রমণ প্রিয়। তাই কাছে হোক বা দূরে যে কোনও স্থানে ঘুরতে যেতে পারলেই এঁদের মন শান্ত হয়ে যায়। কন্যা: কন্যা রাশির জাতক-জাতিকারা মানসিক চাপ কাটানোর জন্য ছবি আঁকেন। কোনও কোনও সময় গান গেয়েও মন হালকা করে থাকেন। তুলা: তুলা রাশির মানসিক চাপ কাটানোর সবথেকে সেরা উপায় ব্যায়াম করা বা জিমে যাওয়া। বৃশ্চিক: বৃশ্চিক রাশির জাতক-জাতিকাদের মানসিক চাপ কাটানোর উপায় ভাল মন্দ খাওয়া ও ঘুম। ধনু: ভাল সিনেমা দেখা, খেলা, এ সবের মধ্যেই মানসিক শান্তি খুঁজে পান ধনু রাশির মানুষরা। মকর: মকর রাশির মানুষরা সবথেকে বেশি মানসিক শান্তি পান ঈশ্বরের আরাধনা করে। নিজেকে পুজোর কাজে ব্যস্ত রাখতে পারলেও খুব মানাসিক শান্তি বোধ করেন। কুম্ভ: কুম্ভ রাশির মানুষদের খেলাধুলোতেই মানসিক শান্তি, তা নিজে খেলে হোক বা খেলা দেখে। মীন: মীন রাশির মানুষদের মানসিক শান্তি পাওয়ার জন্য বাড়িতে পোষ্য রাখা জরুরী। পোষ্যদের সঙ্গেই সময় কাটিয়ে এঁরা মানসিক শান্তি পান।