গ্যালারী দর্শক শূন্য, তবু ক্রিকেটটা তো শুরু হল

গ্যালারী দর্শক শূন্য, তবু ক্রিকেটটা তো শুরু হল
প্রথম দিন- ইংল্যান্ডঃ ৩৫/১ (১৭.৪) (রোরি বার্নস ২০*, জো ডেনলি ১৪*) আজ বাংলাঃ    প্রকৃতিও যেন শেষ মুহূর্ত অব্দি পরীক্ষা করে নিচ্ছিল মানুষের ধৈর্য। একশো দিনেরও বেশি সময় পর ২২ গজে দুই দল ছিল মুখোমুখি। আম্পায়ার, ক্যামেরা, ধারাভাষ্যকার... সবাই তৈরি। কখন ম্যাচ শুরু হবে সেই প্রতীক্ষায়। টিভির পর্দাতেও ক্রিকেট প্রেমীরা বারংবার চোখ রাখছেন চ্যানেলে। সাউদাম্পটনের এজিয়েস বোলে ক্রিকেট শুরু করার জন্য আদর্শ দিন। আরও এক ইতিহাসের দোরগোড়ায় ইংল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এমন সময় আসর নামল বৃষ্টি। খুব জোরে না হলেও ২২ গজে বল না গড়ানোর কারণ হিসেবে যথেষ্ট। নির্ধারিত সময়ের থেকে অনেকটাই দেরিতে হল টস। ব্যাট করতে গেল আয়োজক দল ইংল্যান্ড। মেঘলা আকাশের নীচে সবুজ মাঠ, সাদা জার্সি পরিহিত দুই দলর ক্রিকেটার এবং আম্পায়াররা। খেলা শুরু হওয়ার পর মনেই হচ্ছিল না যে মাঠের বাইরে সবকিছু ওলটপালট করে দিচ্ছে কোভিড-১৯ নামক কোনও মারণ ভাইরাস। নতুন লাল বলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলারদের খুব একটা সমস্যা হয়েছে বলে মনে হয়নি আপাত দৃষ্টিতে। তবে বল পুরানো হলে কীভাবে সুইং করানো হচ্ছে সেদিকে নজর রাখবেন ক্রিকেট অনুরাগীরা। দ্বিতীয় ওভারে ডোম সিবলেকে শ্যানন গ্যাব্রিয়েল যে বলে আউট করলেন তা দির্ঘদিন মনে রাখবেন তিনি। করোনা পরিবর্তি ক্রিকেটে প্রথম উইকেট। তবে গ্যালারিতে দর্শকের অনুপস্থিতিতে চোখ টানছিল বারবার। তবু এটা ভেবেই স্বস্তি যে অন্তত ক্রিকেটটা শুরু তো হল! এটা দেখে কিছুক্ষণ ভুলে থাকা যাবে করোনা মহামারীকে।