এবার বাংলায় ধর্ষনের শিকার পাঁচ বছরের শিশু কন্যা

Five years old child raped in Bengal

বিশ্বজিৎ সরকার,আজবাংলা দার্জিলিংঃ কাঠুয়া, উন্নাওয়ের ঘটনা নিয়ে যখন দেশজুড়ে আলোড়ন, ঠিক তখনই বাংলাতে ঘটল আরও একটি ভয়ঙ্কর ঘটনা । রান্নাবাটি খেলার নাম করে বাড়ি থেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন পাঁচ বছরের শিশু কন্যাকে। ঘটনাটি ঘটেছে খড়িবাড়ী থানার অন্তর্গত ইন্দো নেপাল সীমান্তে পানিটাঙ্কির গৌরসিং জোত এলাকায়। সূত্রপাত চলতি মাসের ৬ তারিখে। অভিযোগ ৬ তারিখ সকালে পাশের বাড়ির ১৪ বছর বয়সী মানব রায় খেলার নাম করে তাকে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। তারপরই তাকে ধর্ষণ করে। প্রথম অবস্থায় মেয়েটি কিছু জানায়নি বাড়িতে। কিন্তু আস্তে আস্তে শরীরের অবস্থা বেগতিক হতে থাকে। জ্বালা যন্ত্রনায় চিৎকার করে মেয়েটি। বাড়ির লোক শিশু টির কাছে জানতে চাইলে, শিশু সব ঘটনা বাড়ির লোক কে জানায়,পাশের বাড়ির মানব কি পাশবিক অত্যাচার করেছে তার সাথে। তড়িঘড়ি বাড়ির লোক শিশু টিকে নক্সাল বাড়ি প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখানে ডাক্তার পরীক্ষা করে তাকে রেফার করে দেয় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। সেখানে টানা সাত দিন চিকিৎসা র পর মোটামুটি সুস্থ হয়ে উঠে সে। এরপরই গতকাল (মঙ্গলবার) খড়িবাড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে তার পরিবার। এদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত মানব রায়। তার বাড়ির লোক বলছে তারা জানেন না ছেলে কোথায়। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। খোঁজ হচ্ছে মানব রায় কে। সত্যি সে নিজে থেকে আত্মা গোপন করেছে , না বাড়ির লোক তাকে পাঠিয়ে দিয়েছে অন্য কোথাও। যদিও বা গত কয়েক দিন ধরে মানব রায় কে না পাওয়া গিয়ে থাকে তাহলে কেন পুলিশ কে জানায় নি তার পরিবার । এইরকম এক ছেলে কে বাঁচাতে এত টা উদ্যোগী তার পরিবার ? ওপর দিকে প্রশ্ন উঠেছে ধর্ষক নাবালক। বয়স তার মাএ ১৪। ভারতীয় সংবিধান অনুযায়ী কতটা সাজা পাবে সে ? শিশু টির পরিবার ছেলেটির এমন পৈশাচিক আচরণে কঠোর শাস্তির দাবি করছে ।