মুকুলের হাত ধরে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী নদীয়ার বঙ্কিমচন্দ্র ঘোষ সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে

মলয় দে আজবাংলা নদীয়া একদা হরিণঘাটা অঞ্চলের দাপুটে বিধায়ক ছিলেন বঙ্কিম ঘোষ। সেসময় বাঘে হরিণে এক ঘাটে জল খেত তার প্রভাবে। বেশ কিছুদিন ধরেই সিপিআইএম রাজ্য নেত্রী তোর সাথে বাড়ছিল দূরত্ব। সারাদিন মানুষের বিভিন্ন সমস্যায় পাশে দাঁড়ানো এই লড়াকু ব্যক্তিত্ব ক্রমশই হতাশ হতে দেখা যাচ্ছিলো প্রশাসননিক এবং রাজনৈতিক ক্ষমতার হ্রাসের কারণে। এ প্রসঙ্গে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান " মানুষের জন্য রাজনীতি করা, রাজনীতির জন্য মানুষকে ব্যবহার করা নয়। সারা রাজ্য তথা দেশ মোদী ম্যাজিকের বিশ্বাসী সেখানে আমি তো সামান্য কর্মী মাত্র। মানুষ যেটা চায় আমি সেটাই করেছি। বুদ্ধদেব ভটাচার্যের মন্ত্রী সভায় গ্রামোন্নয়ন দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জায়গা পান নদিয়ার হরিণঘাটা থেকে নির্বাচিত বঙ্কিম বাবু। বঙ্কিমচন্দ্র ঘোষ মাস দুয়েক আগেই বিজেপিতে যোগদান করতে চেয়ে মুকুল রায়ের সঙ্গে দেখা করেন। চলতি সপ্তাহে দলের রাজ্য সদর দফতরে এসে বিজেপিতে যোগদানের বিষয়টি পাকা করে ফেলেন সদ্য দলে যোগ দেওয়া বঙ্কিমচন্দ্র ঘোষ। তারপর তিনি রবিবার আইসিসিআরে পাকাপাকি ভাবে বিজেপিতে যোগদান করেন। তাকে দলের উত্তরীয় পরিয়ে বিজেপিতে স্বাগত জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।এ প্রসঙ্গে সিপিআইএমের নেতৃত্ব জানান বঙ্কিমবাবু কে তারা আজ সকালে দশটার সময় বহিষ্কার করেন দলের নিয়ম নীতি না মানার জন্য।তথ্যসূত্রে বিজেপি নেতৃত্ব জানিয়েছেন বিভিন্ন দলের অনেক লড়াকু নেতৃত্বে বিজেপির সাথে চাইছেন মানসিকভাবে। প্রকাশ্যে দেখা যাবে অনেককে শুধু সময়ের অপেক্ষা।