মালদায় রেল লাইনের ধারে রক্তাক্ত অবস্থায় মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

মালদায়  রেল লাইনের ধারে রক্তাক্ত অবস্থায়  মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

 বৈষ্ণবনগর রেল লাইনের ধারে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার হল দশম শ্রেণির ছাত্রীর দেহ। মালদহের বৈষ্ণবনগর থানার ১৬ মাইল মহাজনটোলা এলাকায় ঘটনা। খুনের আগে শারীরিক নির্যাতনের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না স্থানীয়রা। স্থানীয় সূত্রে খবর, গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিল রাজনগর হাইস্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। রাতে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করেও মেয়ের হদিশ পাননি।

সকালে মৃতদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। গলায় ও শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে বলে দাবি পরিবারের। মাথায় ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়ে থাকতে পারে বলেও প্রাথমিক ধারণা পুলিশের। স্থানীয় সূত্রে খবর, পোশাকও অসংলগ্ন ছিল। খবর পেয়ে এলাকায় পৌঁছয় রেলপুলিশ এবং বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল রেললাইনের থেকে বেশ খানিকটা দূরে হওয়ায় বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে।

মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর এই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ  নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এদিকে দশম শ্রেণির ছাত্রীর এইভাবে রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সকাল থেকেই কাতারে কাতারে মানুষ এলাকায় ভিড় জমান।

মৃতের পরিবারের দাবি, স্কুলেরই এক ছাত্রের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল মেয়ের। গতকাল সন্ধ্যায় পড়তে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর আর তার খোঁজ মেলেনি। সকালে সহপাঠী ওই ছাত্রের বাড়ির কাছেই দেহ উদ্ধার হয়। যদিও ওই ছাত্রের দাবি, বেশ কিছুদিন আগেই তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। ছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনা সংক্রান্ত কোনও বিষয়ে জানা নেই বলেও দাবি করে সে। ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তুলেছে পরিবার। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনা খতিয়ে দেখা হবে ।