হিজাবে ঢাকবেন না মাথা, তাই আন্তর্জাতিক দাবা প্রতিযোগিতা থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করলেন সৌম্যা স্বামীনাথন।

Grandmaster Soumya-Swaminathan

আজ বাংলা    ইসলামীয় দেশ ইরানের হিজাব নীতি মানা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়, তা তাঁর ব্যক্তি স্বাধীনতার বিরোধী। তাই এই প্রতিযোগিতায় যোগ দেবেন না গ্র্যান্ডমাস্টার সৌম্যা স্বামীনাথন। ইরানে হতে চলা আন্তর্জাতিক দাবা প্রতিযোগিতা থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করলেন স্বামীনাথন।  ২০১৬ সালে বন্দুকবাজ হিনা সিধুও একই কারণে ইরানে হতে চলা এশিয়ান এয়ারগান চ্যাম্পিয়নশিপে যোগ দেননি। বন্দুকবাজ হিনা সিধুও স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন, হিজাব পরতে পারবেন না। ফেসবুকে গ্র্যান্ডমাস্টার সৌম্যা স্বামীনাথন লিখেছেন, বিচারের স্বাধীনতা সহ বিবেক ও ধর্ম পালনের অধিকারকেও খণ্ডন করছে এই নীতি। এই পরিস্থিতিতে নিজের অধিকার রক্ষার একটাই রাস্তা- তা হল, ইরান না যাওয়া।  আমি জোর করে চাপিয়ে দেওয়া স্কার্ফ বা বোরখা পরতে চাই না। আমার বিশ্বাস, ইরানি আইন অনুযায়ী এই জোর করে স্কার্ফ পরানোর নীতি আমার মানবাধিকার সরাসরি খণ্ডন করছে। গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে না পেরে আমি অত্যন্ত দুঃখিত। একজন খেলোয়াড় খেলাকেই তার জীবনে সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়, এ জন্য সব ধরনের সমঝোতা করতে পারে। কিন্তু এমনও কিছু বিষয় আছে যার সঙ্গে সমঝোতা চলে না।