দেশে গহনা-সোনায় হলমার্কিং বাধ্যতামূলক, জেনে নিন নতুন নিয়ম

আজবাংলা   কোনও গয়নায় ব্যবহার করা সোনা কতটা খাঁটি, তার সার্টিফিকেটই হল হলমার্কিং। দেশে ২০০০ সাল থেকেই এই ব্যবস্থা চালু করেছে ব্যুরো অব ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ড (বিআইএস)। তবে এত দিন তা বাধ্যতামূলক ছিল না। ক্রেতা স্বার্থে সেই ব্যবস্থাই বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। মঙ্গলবার এক বিবৃতি প্রকাশ করে এমনটাই জানিয়ে দেয় কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষা দফতর। তবে স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা একটি বছর সময় পাবেন।

এখন মজুত থাকা সোনা বিক্রি করতে এবং ব্যুরো অব ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ডসে (বিআইএস) নাম নথিভুক্ত করতে এক বছর সময় দেওয়া হয়েছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের। ২০২১-এর ১৫ জানুয়ারির মধ্যে এই সংক্রান্ত যাবতীয় কাজ সেরে ফেলতে হবে তাঁদের। এর পরে হলমার্ক ছাড়া গয়না বিক্রিই করা যাবে না। কেন্দ্রীয় সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সোনার গয়না এখন থেকে ১৪ ক্যারেট, ১৮ ক্যারেট ও ২২ ক্যারেট হিসাবেই অনুমোদিত হবে।

কোনও বিক্রেতা নিয়ম না-মানলে শুধু চড়া জরিমানা নয়, ১ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে তাঁর। জরিমানার অঙ্ক ১ লক্ষ টাকা বা গয়নার দামের পাঁচগুণ পর্যন্ত হতে পারে।এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান বলেন, ‘‘গয়না বা সোনার জিনিস কেনার সময়ে সাধারণ মানুষ যাতে ঠকে না যান, তার জন্যই হলমার্কিং বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। বাজারে ১৪, ১৮ এবং ২২ ক্যারাটের হলমার্ক বসানো গয়নাই পাওয়া যাবে। তাতে গয়নার গুণমানও জানতে পারবেন ক্রেতারা আবার দুর্নীতিও দূর করা সম্ভব হবে।’’

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!