হিন্দু রাষ্ট্র ভারত,এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই’ দাবি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের প্রধান মোহন ভাগবতের

মোহন ভাগবত
মোহন ভাগবত

আজবাংলা ভারতে যারা বাস করে তাঁরা একটা সময় সকলেই হিন্দু ছিল। পরে হয় তাদের জোর করে ধর্মান্তরিত করা হয়, না হয় তাঁরা স্বেচ্ছাই ধর্মান্তকরণ করেন। ভারতে বসবাসকারী মুসলিমরাও একসময় হিন্দু ছিল বলেই বিশ্বাস রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের। তাই, ধর্মান্তকরণ বা ঘর ওয়াপসির মাধ্যমে অন্য ধর্মের মানুষদের হিন্দুতে পরিণত করতে কোনও আপত্তি করে না আরএসএস। আরএসএসকে নিয়ে সুনীল আম্বেকরের লেখা একটি বইপ্রকাশ অনুষ্ঠানে গিয়ে সঙ্ঘ প্রধান মোহন ভাগবত বলেন, ‘কোনও নির্দিষ্ট নীতিকে সংঘের নীতি হিসেবে বর্ণনা করা ভুল। সংঘের কোনও নির্দিষ্ট নীতি নেই। এমনকী, প্রতিষ্ঠাতা ডঃ হেড়গেওয়ারও কখনও বলেননি যে, তিনি সংঘকে পুরোপুরি বোঝেন। এতদিন সংঘপ্রধান থাকার পর গুরুজি বলেছিলেন, তুমি সংঘকে কিছুটা বুঝতে পারছ। আমি যতদূর বুঝি, তাতে আরএসএস কোনও নির্দিষ্ট নীতিতে বাঁধা নয়। কোনও নির্দিষ্ট একটি বইয়ের লেখার মাধ্যমে আরএসএসকে বর্ণনা করা যায় না। সেটা গোলওয়ালকরের বই থেকেও নয়। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অবশ্য দেখানো হয় আমাদের আদর্শ হলেন, প্রভু হনুমান, মারাঠা মহারাজ ছত্রপতি শিবাজী এবং হেড়গেওয়ার।’ এরপরই সংঘপ্রধান বলেন, আরএসএস শুধু একটি নীতিতেই স্থির। সেটা হল ভারত হিন্দু রাষ্ট্র। আর এ নিয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই।  

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!