রাত পোহালেই মহালয়া! করোনা আবহে একা কিভাবে করবেন তর্পণ, জানুন বিস্তারিত

রাত পোহালেই মহালয়া! করোনা আবহে একা কিভাবে করবেন তর্পণ, জানুন বিস্তারিত

আজবাংলা       রাত পোহালেই মহালয়া | আর কিছুক্ষুণ পরেই সকলের বাড়িতে ভোর বেলায় বেজে উঠবে মহালয়ের পাঠ | এবছর মহালয়ার একমাস পর দূর্গাপুজো | মহালয় মানেই বাঙালির  মনে প্রাণে বেজে ওঠে পুজোর ধ্বনি | মানব জাতিকে করোনামুক্ত করতে মা দুর্গা আসছেন মর্তে | সকলেই অপেক্ষা করে আছেন মায়ের আগমনের | সকলের বিশ্বাস মা এলেই সকলে নিস্তার পাবে এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে |

মা সবসময় যেমন নিজের সন্তানদের রক্ষা করে চলেছেন | ঠিক তেমনি মা সবসময় তার সন্তানের পাশে থেকে রক্ষা করে যাবেন | মহালয়ার দিন বাঙালিরা তর্পন করেন | নিজেদের পিতৃপুরুষদের  জল দেন | গঙ্গায় গিয়ে পুরোহিতের সাহায্যে তর্পন করেন অনেকেই | কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতি মধ্যে কিভাবে একা তর্পন করবেন জেনে নিন | 

১. প্রয়োজন পরিষ্কার জল, কালো তিল ও কূশ | ছটি কুশ জলে ভিজিয়ে সেটা নরম হলে তিনটি কুশ অনামিকায় আংটির মতো ধারণ করুন |

২. স্নান সেরে সূর্যের দিকে মুখ করে তর্পণ করতে হয় | প্রথমে আচমন করতে হয় দুবার |

৩. তারপরে জল নিয়ে বলবেন, ওঁ ব্রহ্ম তৃপ্যতাম ওঁ বিষ্ণু স্তৃপ্যতাম ওঁ রুদ্র স্তৃপ্যতাম্ ওঁ প্রজাপতি স্তৃপ্যতাম্র |  এরপরে বলবেন ওঁ দেবা যক্ষাস্তুথা নাগা গন্ধর্ব্বাপ্ সরসোহসুরাঃ | ক্রূরাঃ সর্পাঃ সুপর্ণাশ্চ তরবো জিহ্মগাঃ খগাঃ | বিদ্যাধরা জলাধারা স্তথৈবাকাশগামিনঃ | নিরাহারশ্চ যে জীবাঃ পাপে ধর্ম্মে রতশ্চ যে | তেষামাপ্যায়নায়ৈতদ্ দীয়তে সলিলং ময়া |

৪. এর পরে একে একে মনুষ্য তর্পণ, ঋষি তর্পণ, দিব্যপিতৃ তর্পণ, যম তর্পণ ও পিতৃ তর্পণ সারতে হবে |