হালকা হালকা শীত পড়েছে, দুপুরের মেনুতে যদি হয় ইলিশ খিচুড়ি তাহলে আর কি চাই?

হালকা হালকা শীত পড়েছে, দুপুরের মেনুতে যদি হয় ইলিশ খিচুড়ি তাহলে আর কি চাই?

আজবাংলা                                                                 ইলিশ খিচুড়ি (ilish khichuri)

ইলিশ এমনই এক সুস্বাদু মাছ যেটা যার সাথেই যুক্ত করা হয়, তাতেই এনে দেয় স্বাদের ভিন্নতা। আপনারা সর্ষে ইলিশ বা ইলিশ পোলাওয়ের নাম তো অহরহই শুনে থাকবেন। এবার দেখে নিন ইলিশ খিচুড়ির একটা দারুন রেসিপি। ইলিশ ও খিচুড়ি বাঙালি পাতে একেবারেই ‘ডেডলি কম্বিনেশন’। আদতে খাবারের ধারা ও ধরনে কিন্তু এই দুই পদের মিলমিশ হওয়ারই কথা নয়। তবু লুচি-মাংসের মতোই এই পদও রান্নার মিলমিশের ব্যাকরণে এক অনন্য ‘ব্যতিক্রম’। 

উপকরণ: 

২ টুকরো ইলিশ
1/2 কাপ গোবিন্দ ভোগ চাল
1/2 কাপ মুগ ডাল
১টা বড় পেঁয়াজ কুচি
১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
স্বাদ মতো নুন চিনি
স্বাদ মতো কাঁচা লঙ্কা চেরা
১চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো
১চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো
১টেবিল চামচ ঘি
১/২ চা চামচ গোটা জিরা
১টা শুকনো লঙ্কা
১টা তেজপাতা

ধাপ: 

১. মাছ নুন হলুদ মাখিয়ে হালকা ভেজে নিতে হবে।

২. কড়াইতে সর্ষে তেল দিয়ে শুকনো লঙ্কা, তেজপাতা, গোটা জিরা ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি নুন দিয়ে ভেজে কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে একটু ভেজে নিন

৩. এবার চাল ডাল দিয়ে ভালো করে ভেজে নিতে হবে

৪. এবার হালকা গরম জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে ১০মিনিট

৫. এবার ভেজে রাখা মাছ দিয়ে কয়েক টা কাঁচা লঙ্কা দিয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে ১০-১৫ মিনিট।

৬. এবার মাছ টা সেদ্ধ হয়ে গেলে সেটা তুলে আলাদা করে রেখে দিতে হবে

৭. এবার চাল ডাল যদি পুরোপুরি সেদ্ধ না হয় তাহলে আর কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিয়ে ঘি, গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে মিশিয়ে মাছ গুলো উপরে রেখে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে একটু।

৮. তারপর সার্ভ করুন