খাদ্য রসিক বাঙালির খাদ্য তালিকায় মাছের এই স্ন্যাক্সটি একটি অন্য স্থান অর্জন করে, রইল রেসিপি

খাদ্য রসিক বাঙালির খাদ্য তালিকায় মাছের এই স্ন্যাক্সটি একটি অন্য স্থান অর্জন করে, রইল রেসিপি

আজবাংলা

                                                                   তোপসে মাছের ফ্রাই (Topse mach er fry)

মাছের সঙ্গে বাঙালির একটা আলাদা টান রয়েছে | সে যেকোনো মাছই হোক  | মাছ ছাড়া যেন বাঙালির মুখে ভাতই ওঠে না | দুপুরে হোক কিংবা রাতে খাওয়ার প্লেটে যদি থাকে মাছ তাহলে আর খেতে কেউই দেরি করে না | অন্যদিকে বেশ কিছু পদের জন্যই সারা বিশ্বে বাঙালির অন্য এক খ্যাতি রয়েছে | খাদ্য রসিক বাঙালির খাদ্য তালিকায় মাছের এই স্ন্যাক্সটি একটি অন্য স্থান অর্জন করে আছে | যদি সামনে থাকে তোপসে মাছের ফ্রাই তাহলে আর কোন কোথায় নেই | তাই আজ রইল বাঙালির অত্যন্ত প্রিয় একটি স্ন্যাক্স তোপসে মাছের ফ্রাই রেসিপি | দোকানে বা রেস্তোরাঁর স্বাধ এবার পাবেন বাড়িতেই |

উপকরণ: 

৪ টে মাঝারি মাপের তোপসে মাছ

মাছ ম্যারিনেট এর জন্য:

১ টা মাঝারি মাপের পেঁয়াজ বাটা
২ টেবিল চামচ রসুন বাটা
১ টেবিল চামচ আদা বাটা
২ চা চামচ লেবুর রস
১ চা চামচ নুন
১ টেবিল চামচ কাঁচালঙ্কা বাটা
১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
১ চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো
১/২ চা চামচ সোয়া সস

ব্যাটার বানানোর জন্য:

৩ টেবিল চামচ বেসন
২ টেবিল চামচ ময়দা
২ টেবিল চামচ কর্নফ্লাওয়ার
১ টেবিল চামচ চালের গুঁড়া
১ চা চামচ নুন
১ চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো
১ চা চামচ কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো
১/৪ কাপ জল
পরিমাণ মতো সর্ষের তেল ভাজার জন্য

ধাপ: 


১. প্রথমে মাছ গুলো ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে।

২. মাছ ম্যারিনেট করার জন্য সমস্ত উপকরণ গুলো মাখিয়ে নিতে হবে। মাছ টাকে মাখিয়ে নিয়ে ২ ঘণ্টার জন্য চাপা দিয়ে রাখতে হবে।

৩. ব্যাটার বানানোর সমস্ত শুকনো উপকরণ গুলো একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে।

৪. অল্প অল্প করে জল মিশিয়ে একটা ব্যাটার তৈরি করে নিতে হবে।

৫. ২ ঘণ্টা পরে ম্যারিনেট করা মাছ গুলো থেকে একটা একটা করে মাছ নিয়ে ব্যাটারে ডুবিয়ে দিতে হবে।

৬. কড়াইতে তেল গরম করতে দিতে হবে। তেল গরম হলে ব্যাটারে ডোবানো মাছ গুলো দিয়ে দিতে হবে। এক পিঠ ভাজা হয়ে এলে উল্টো দিক টাও লাল করে ভেজে তুলে নিতে হবে।

৭. গরম গরম তোপসে মাছ এর ফ্রাই গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করলে কিন্তু জমে যাবে ।