সিয়ারার আঘাতে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে ইউরোপের জনজীবন

আজবাংলা    উত্তর ইউরোপে আঘাতে হেনেছে ঘূর্ণিঝড় সিয়ারা৷ তীব্র বাতাস আর ভারী বৃষ্টিতে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে জনজীবন৷সিয়ারা ঝড় আঘাত হেনেছে ইউরোপের কয়েকটি দেশে। স্থানীয় সময় গত রবিবার নর্দার্ন ইংল্যান্ডে ঘণ্টায় ১২৯ কিলোমটির গতিতে আঘাত হানে ঝড়টি।

এতে অসংখ্য ঘরবাড়িসহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভারী বৃষ্টিতে অনেক জায়গায় দেখা দিয়েছে বন্যা। সিয়ারার তাণ্ডব চলেছে ফ্রান্স ও জার্মানিতেও। এ জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল বিভিন্ন রুটের ট্রেন। বাতিল হয় দুই শর মতো ফ্লাইট। ঘণ্টায় ১২৯ কিলোমিটার গতির ঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে নর্দার্ন ইংল্যান্ডের বিভিন্ন এলাকা। ঝড়ের কারণে ফ্রান্সের ১ লাখ ৩০ হাজার বাড়ির বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।ঝড়ে অসংখ্য ঘরবাড়িসহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সিয়ারা ঝড়ের পর হঠাৎ সৃষ্ট গর্তে পড়ে যায় টয়োটা গাড়ি। সোমবার গাড়ি উদ্ধার করা হয়। হ্যাচ রোড, ব্রেটনউড, ইংল্যান্ড।সিয়ারা ঝড়ের পরে বৃষ্টিতে রাস্তায় জমেছে জল।

জল পেরিয়ে চলছে গাড়ি। ম্যানচেস্টার, ইংল্যান্ড। ঝড়ের দাপট গিয়ে পড়ে ব্রিটেনে। সেখানে সিয়েরার গ্রাসে দেখাযায় প্লাবন। সঙ্গে ছিল তুষারের দাপট। সব মিলিয়ে বাড়তে থাকে বিপর্যয়।ঝোড়ের হাওয়ার সঙ্গে ছিল বৃষ্টি, আর পরে যোগ হয় তুষার। এর জেরে বিচ্ছিন্ন হয় ব্রিটেনের সড়ক ও আকাশ পথের যোগাযোগ।এমন ঝড়ের জেরে একাধিক বিমানের সংযোগ বিঘ্নিত হয়েছে। বহু বিমান ব্রিটেন থেকে দেরিতে ছেড়েছে। বিভিন্ন রেল সংস্থা পর্যটকদের উদ্দেশে সতর্কবার্তা দিয়ে ট্রেনের পরিবর্তিত টাইম টেবল সঙ্গে রাখতে বলেছে। বহু জায়গায় বেড়াতে না যাওয়ারও বার্তা দেওয়া হয়েছে রেল সংস্থাগুলির তরফে।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!