তেলেঙ্গানায় লকডাউন না মানলেই চালানো হবে গুলি হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

আজবাংলা    মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করার পরই খড়গহস্ত হয়ে ওঠেন তেলেঙ্গানা মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। প্রথমে তিনি জনগণের কাছে আবেদন করেন লকডাউনের সময় ঘরে থাকতে। সঙ্গে রাজ্যবাসীকে প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতারও আরজি জানান। তারপরই তিনি বলেন, ‘যদি পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে না পারে তাহলে দেখামাত্র গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হবে। সেইসঙ্গে সেনাও মোতায়েন করা হবে।’ যদিও এই নির্দেশিকা এখনও রাজ্য পুলিশের কাছে পাঠান হয়নি, তবে শীঘ্রই তা পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জানা যায়। দেশের এই পরিস্থিতি চন্দ্রশেখর রাও সব রাজনৈতিক নেতাদের কাছেও আবেদন করেন, সোশ্যাল ডিসটেন্স বজার রাখার জন্য। তিনি বলেন,”সব নেতারা কোথায়? আমি রাস্তায় কোনও নেতাকে দেখতে পাচ্ছি না। আমি শুধু পুলিশ, পুরসভা ও অন্যান্য দপ্তরের কর্মীদের দেখছি। মানুষকে সাহায্য করার জন্য নেতাদের বেরিয়ে আসতে হবে।” কোনও জরুরি প্রয়োজন হলে রাজ্যবাসীকে ১০০ নম্বরে ডায়াল করার পরামর্শ দিয়েছেন চন্দ্রশেখর রাও। তেলেঙ্গানায় এখনও পর্যন্ত ৩৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলেই জানিয়েছে কেসিআর। মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”যাঁরা বিদেশ থেকে এসেছেন তাঁদের ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে। কেউ এই নিয়ম ভাঙলে তাঁর পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত হবে ও শাস্তি দেওয়া হবে।” গ্রামাঞ্চলে এই সমস্যা খুব একটা বেশি দেখা না যাওয়ায় কৃষি ও তার সঙ্গে যুক্ত কাজকর্ম চলবে বলেই জানিয়েছেন চন্দ্রশেখর রাও।