অভিনব চায়ের কাপ....চায়ের পাশাপাশি খেতে পারবেন কাপও

অভিনব চায়ের কাপ....চায়ের পাশাপাশি খেতে পারবেন কাপও
আজ বাংলা: চা...আপামর ভারতবাসীর কাছে এক কাপ চা একটি আবেগ৷ অতিথি আপ্যায়ন থেকে সঙ্গে বন্ধুদের আড্ডা, প্রবল গরম থেকে জবুথবু ঠান্ডা চা ছাড়া অনেকেরই একটা দিনও চলে না। তবে আমরা রাস্তা ঘাটে যে চা খাই তার বেশির ভাগই মাটির ভাঁড় বা প্লাস্টিকের চায়ের কাপে। যা ফেলি দিই।   তবে এর থেকে ভীষণ রকম পরিবেশ দূষণ হয়। তবে এই দূষণ কমাতেই অভিনব এক চায়ের কাপে চা বিক্রি করছে মাদুরাইয়ের একটি সংস্থা। মাদুরাইয়ের এই সংস্থা জানিয়েছে তাদের তৈরি চায়ের কাপটিও খেয়ে ফেলতে পারবেন আপনি। শুধু চা নয় যে কোনো ঠান্ডা বা গরম পাণীয় খাওয়া যাবে সেই কাপে। প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি হয়েছে কাপটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইট কাপ’ । মাটির, কাগজ বা প্ল্যাস্টিকের ভাঁড় থেকে মুক্তি দেবে এই কাপ। সংস্থার ম্যানেজার বিবেক সবপথি জানিয়েছেন, “প্রতিটি কাপ ১০ মিনিটের জন্য ৬০ মিলি গরম চা ধরে রাখতে পারে।” জানা গিয়েছে, অন্তত ৫০০ কাপ চা বিক্রি করেছে সংস্থাটি৷ তবে প্রশ্ন হল কিভাবে এল এই বিস্কুট কাপের ভাবনা? এই সম্পর্কে বিবেক জানিয়েছেন, লকডাউনের সময় তারা প্লাস্টিকের কাপের কিছু বিকল্পের কথা ভাবছিলেন। যদি এটি পুনঃব্যবহারযোগ্য কাচ হয় তবে লোকেরা ব্যবহৃত গ্লাসের 1কলকাতাবিধি সম্পর্কে উদ্বিগ্ন। সুতরাং, অন্যরকম কিছু করার কথা মাটির কাপগুলি ব্যবহার করার চিন্তা মাথায় আসে। তারপরই তারা অভিনব বিস্কুটের কাপ সম্পর্কে জানতে পারেন। যা হায়দ্রাবাদের একটি কোম্পানি তৈরি করে।