চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দিলেন বাস্তবের ‘র‍্যাঞ্চো'

আজবাংলা     ইন্দো-চিন সীমান্তে এলএসি বরাবর পিএলএ'র আগ্রাসন নিয়ে এবার মুখ খুললেন সোনম ওয়াংচুক শিক্ষাবিদ তথা ম্যাগসাইসাই পুরস্কারজয়ী এই সোনমের কাহিনী নিয়ে তৈরি ছবি থ্রি-ইডিয়টস অর্থাৎ সেই ছবির র‍্যাঞ্চোই বাস্তবের সোনম ওয়াংচুক। শুক্রবার তিনি কড়া ভাষায় চিনা আগ্রাসনের সমালোচনা করলেন।পাশাপাশি চিনা পণ্য বর্জনের ডাক দিয়েছেন সোনম। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন তিনি। সেই ভিডিওতে স্পষ্ট ভাষায় বেজিংয়ের সমালোচনা করেন সোনম। তিনি বলেছেন, "সীমান্তে ভারতীয় সেনা বুলেট দিয়ে আর নাগরিকরা ওয়ালেট দিয়ে জবাব দেবে। আমাদের অবিলম্বে উচিত চিনা পণ্য বর্জন করা। পর্দায় সোনম ওয়াংচুকের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন আমির খান। তাঁর সুপারহিট ছবি 'থ্রি ইডিয়টস'-এর ফুংসুক ওয়াংড়ুর চরিত্রটি আসলে সোনম ওয়াংচুকের আদলে। লাদাখে চিনা আগ্রাসনের পরই গর্জে উঠেছেন ওয়াংচুক। ভিডিয়োবার্তায় বলেছেন,''চিনকে জবাব দেবে সেনার বুলেট। কিন্তু নাগরিকদের ওয়ালেটে দিতে হবে।'' স্পষ্ট কথায়, চিনা পণ্য বয়কট করে ভাতে মারতে হবে। লকডাউনে ২০ লক্ষ কোটির আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী দেশকে আত্মনির্ভর হওয়ার ডাক দিয়েছিলেন। স্বদেশি জিনিসপত্র কেনার আবেদন করেছেন মোদী। তার আগে 'মেক ইন ইন্ডিয়া' কর্মসূচিও নিয়েছে তাঁর সরকার। সেই সুরেই হিমালয়ের মাঝে সিন্ধুপারে বসে ওয়াংচুক বলেছেন,''চিনা পণ্য বয়কট করলে সে দেশের অর্থনীতির উপরে চাপ বাড়বে। এর ফলে সরকার পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।'' শুধু বার্তা দেওয়াই নয়, এবার থেকে চিনা মোবাইল ব্যবহার করবেন না বলেও জানিয়েছেন  তিনি।  সোনম ওয়াংচুক বলেন প্রতি বছর ভারত চিনের ৫ লক্ষ কোটি টাকার পণ্য ক্রয় করে। সেই টাকা সামরিক খাতে বরাদ্দ করে চিন। আমরা, ভারতীয়রা সেই পণ্য কেনা বন্ধ করলে, লোকসানের মুখে পড়বে চিনা রফতানি। আর্থিক মন্দার চাপে সীমান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনায় রাজি হবে তারা"  তাঁর অভিযোগ, "এমন আগ্রাসন নীতি চিন শুধু ভারত নয়, অন্য পড়শি দেশের সঙ্গেও চালিয়ে গিয়েছে। ভিয়েতনাম, তাইওয়ান আর হংকংয়ের মতো দেশও চিনের উপদ্রবে বিরক্ত।" তাঁর দাবি,"অভ্যন্তরীণ সমস্যাগুলো থেকে নজর ঘোরাতে এভাবে আন্তর্জাতিক ইস্যুগুলো উসকে দেয় চিন।" চিন সরকার তাদের নাগরিককে ভয় পায়। সে দেশে শ্রমিক অধিকার ছাড়াই কাজ করানো হয়। এক অংশ বিত্তবান হয় আর এক অংশ দরিদ্র হয়। ফলে মানুষের মনে চাপা অসন্তোষ। ১৪০ কোটিড় জনসংখ্যা নিয়ে চিন এমনিতেই নাস্তানাবুদ। তাই নাগরিক বিদ্রোহের আঁচ থেকে বাঁচতে এসব করে নজর ঘোরাতে চায়। এমন দাবিও সেই ভিডিওতে করেছেন সোনম।   https://twitter.com/milindrunning/status/1266384133413994497?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1266384133413994497&ref_url=https%3A%2F%2Fzeenews.india.com%2Fbengali%2Fnation%2Fmilind-soman-backed-sonam-wangchuks-plea_318234.html