আন্তঃদেশীয় জাল নোট পাচারকারী মহিবুর রহমান ও আমির হোসেনকে গ্রেপ্তার করল সিআইডি

Inter-operable counterfeit banknotes
সিআইডি
Inter-operable counterfeit banknotes
সিআইডি

আজবাংলা মালদা  শুক্রবার দুপুরে গোপন খবরের সূত্র ধরে মালদার কালিয়াচক থানার সুজাপুর এলাকার থেকে গ্রেপ্তার করা হয় দুই পাচারকারীকে । তাদের কাছ থেকে ২০০টি ২০০০ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার সহ দুই পাচারকারীকে গ্রেফতার করে ওই সিআইডির দল। সিআইডি সূত্রের খবর,ধৃতদের মধ্যে মহিবুর রহমান কালিয়াচক থানার ছারকাতলা এবং অন্য জন আমির হোসেন বাসতলা এলাকার বাসিন্দা। জানাগেছে ,আন্তঃদেশীয়  এই দুই জাল নোট পাচারকারী মহিবুর এবং আমিরের বেশ কিছুদিন ধরেই তল্লাশি চালাচ্ছিল সিআইডির দল । বার বার চেষ্টা করেও সফলতা পাইনি সিআইডি । শেষমেষ জাল নোটের খদ্দের সেজে সিআইডি কর্তারা যোগাযোগ করে এই দুই আন্তঃদেশীয় জাল নোট পাচারকারীর পান্ডার সাথে । সেই মোতাবেক জাল নোট লেনদেনের দিনক্ষণ ঠিক হয় সিআইডি দলের সাথে।পাচারকারীরা জানায় শুক্রবার দুপুরে কালিয়াচকের সুজাপুরের বাস স্ট্যান্ডে দাঁড়াতে । সেখানেই জালনোট হাতে তুলে দেওযা হবে । আন্তঃদেশীয় জাল নোট পাচারকারীদের দেওয়া সময় অনুযায়ী শুক্রবার দুপুর দুটো নাগাদ বেশ কয়েকজন সিআইডির দল ছদ্দ বেশি অপেক্ষা করতে থাকে জাল নোট পাচারকারীদের । জাল নোট কারবারীদের যাতে সন্দেহ না হয় তার জন্য একেবারেই গ্রাম্য ভেসে অপেক্ষা করছিল ওই সিআইডির দল । জাল নোট পাচারের দুই পান্ডা সিআইডির হাতে জাল নোট তুলে দিতেই হাতেনাতে ধরে ফেলে সিআইডি। সিআইডি সূত্রে খবর বেশ কিছুদিন ধরেই এই দুই আন্তঃদেশীয় জাল নোট পাচারকারীর তল্লাশি চালানো হচ্ছিল । বেশ কয়েক বার হাতের নাগালে আসলেও ধরা সম্ভব হয়নি।৪ লক্ষ টাকার জালনোট সহ হাতেনাতে ধরা পড়ে পাচারকারীরা। তবে ওই দুই পাচারকারীকে ইতিমধ্যেই দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে সিআইডির বিশেষ প্রতিনিধির দল।