জগন্নাথপুর প্রবাসী শহিদুল হত্যার প্রধান আসামী ডিবি পুলিশে হাতে গ্রেফতার।

Jagannathpur expatriate Shahidul is arrested by the DB police.
শহিদুল হত্যার প্রধান আসামী ডিবি পুলিশে হাতে গ্রেফতার।

সাইফুল ইসলাম ফয়সা: আজবাংলা কুমিল্লা  সদর উপজেলার জগন্নাথপুরের প্রবাসী শহিদুল ইসলামের আলোচিত হত্যা মামলার অন্যতম আসামী সুমন কে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ। শনিবার বিকালে গ্রেফতারকৃত সুমন ওই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: ইরফানুল হকের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। এর আগে শুক্রবার রাতে নগরীতে থেকে সুমনকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির এসআই সহিদুল ইসলাম (পিপিএম)। গ্রেফতারকৃত সুমন জেলার আদর্শ সদর উপজেলার জোড়ামেহের গ্রামের মোঃ মাহবুব আলমের পুত্র। কুমিল্লা ডিবি  জানায়, চলতি বছরের গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার জোড়ামেহের গ্রামের প্রবাসী সমাজসেবক শহিদুল ইসলাম (৬০) কে পূর্ব শক্রতার জের ধরে গ্রেফতারকৃত সুমনসহ একটি মাদক ব্যবসায়ী চক্রের অন্যান্যরা মিলে পরিকল্পিতভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনার পর দিন নিহতের মেয়ে উম্মে সালমা নার্গিস বাদী হয়ে সুমনসহ ৮ জনকে এজাহার নামীয় আসামী করে কোতয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। দীর্ঘ প্রায় ২ মাস কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ মামলাটি তদন্তের পর গত সপ্তাহে পুলিশ সুপারের নির্দেশে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় ডিবি পুলিশকে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবির এসআই সহিদুল ইসলাম (পিপিএম) জানান, ভিকটিমের সাথে সুমনসহ অন্যান্য আসামীগণের দীর্ঘ দিনের ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে। হত্যাকান্ডের পর আসামীরা আত্মগোপনে চলে যায়। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার রাতে মামলার অন্যতম আসামী সুমনকে নগরী থেকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার বিকালে গ্রেফতারকৃত সুমন ওই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকারসহ হত্যাকান্ডের কারণ এবং হত্যাকান্ডে সরাসরি অংশ নেয়া অপর আসামীদের নাম প্রকাশ করে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: ইরফানুল হকের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। হত্যাকান্ডে জড়িত অপর আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে এবং তারাও দ্রুতই গ্রেপ্তার হবে বলেই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান।