কালিয়াচকের বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে কাফ সিরাপ ও চার পাচারকারী গ্রেপ্তার

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদা বৃহস্পতিবার রাতে কালিয়াচকের গোলাপগঞ্জ বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে কাফ সিরাপ সহ চারজন পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করে বিএসএফ। ওই ঘটনায় পাঁচশো কাফ সিরাপ উদ্ধার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই ধরপাকড়ের ঘটনায় বিএসএফের সঙ্গে পাচারকারীদের রীতিমতো ধস্তাধস্তি হয়। ধৃত চার জনেরই বাড়ি কালিয়াচকের বাংলাদেশ সীমান্ত ঘেঁষা এলাকায়। ধৃতদের শুক্রবার কালিয়াচক থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, আজ শনিবার তাদের আদালতে তোলা হবে।বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা হলেন গোপালনগরের বিশু মিয়াঁ, মিস্ত্রিপাড়ার এনামুল শেখ , ষাঁড়দহের বাবর আলি ও চড়ি অনন্তপুরের দুরল মিয়াঁ।বিএসএফের ২৪ নম্বর ব্যাটেলিয়ান সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে গোলাপগঞ্জের ষষানি সীমান্তে টহলদার এর সময় একদল লোককে কাঁটাতার সংলগ্ন এলাকায় দেখা যায়। অভিযোগ, ওই দলটি কাফ সিরাপ পাচারের চেষ্টা করছিল। বিএসএফ তাড়া করলে ওই দলে থাকা অন্তত ১০ জন পালাতে শুরু করে। তারা খড়িবোনা ও ষাঁড়দহ দিকে পালাতে থাকে। বাকিরা পালিয়ে গেলেও শেষপর্যন্ত বিএসএফ জওয়ানরা চারজনকে ধরে ফেলে। সে সময় ওই চারজনের সাথে জওয়ানদের রীতিমত ধস্তাধস্তি হয়। বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজি রবি রঞ্জন বলেন, "কাফ সিরাপ পাচারের চেষ্টার অভিযোগে চার কারবারিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৫০০ বোতল কাফ সিরাপ উদ্ধার করা হয়েছে। সেগুলি ২০ টি বান্ডিলে রাখা ছিল। ধৃতদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।"