পথচারীদের ওপর গাড়ি তুলে দেওয়া কানাডার টরোন্টোয় নিহত ১০

কানাডার টরোন্টোয় নিহত ১০

আজবাংলা কানাডার টরোন্টোয় পথচারীদের ওপর গাড়ি তুলে দেওয়ার ঘটনায় ১০ জন নিহত হয়েছে। আহত ১৫ জন। গতকাল সোমবার দুপুরে এই হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে অ্যালেক মিনাসিয়ান (২৫) নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনো জানতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনার সঙ্গে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের কোনো সম্পর্ক আছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে টরোন্টো পুলিশের প্রধান মার্ক সন্ডার্স বলেছেন, ‘এ মুহূর্তে জাতীয় নিরাপত্তা ভাঙতে পারে এমন কোনো যোগসূত্র পাওয়া যায়নি। পথচারীদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দিয়ে চালক পালিয়ে যান। পরে কর্তৃপক্ষ জানায়, ঘটনাস্থলের কিছুটা দূরে গাড়িসহ চালককে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তির ছবি সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটে পাওয়া যায়। তিনি অন্টারিওর রিচমন্ড হিলের বাসিন্দা। তাঁর আগের কোনো অপরাধের রেকর্ড পুলিশের কাছে নেই। এ ঘটনায় বিপদে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়াতে যাঁরা জরুরি সাড়া দিয়েছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। এক টুইটে তিনি টরোন্টোর ঘটনায় নিহত শোকগ্রস্ত পরিবারকে সান্ত্বনা দেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী পিটার ক্যাং নামের একজন সিটিভি নিউজকে বলেছেন, পথচারীদের ওপর গাড়ি উঠে যাওয়ার পর তা থামানোর কোনো লক্ষণ চালকের ছিল না। যদি এটা দুর্ঘটনা হতো, তবে তিনি গাড়ি থামানোর চেষ্টা করতেন। তিনি ফুটপাত দিয়ে গাড়ি চালিয়ে গেছেন। গাড়ি থামাননি। আমেরিকা ও ইউরোপে এমন গাড়ি হামলা এখন কার্যত নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে উঠেছে। ৩১ অক্টোবরও নিউ ইয়র্কে এমনই এক হামলায় ৮ জনের মৃত্যু হয়। আইএসআইএস সেই হামলার দায় কবুল করে। গ্রেফতার করার সময় অভিযুক্ত ‘আমাকে মেরে ফেল’ বলে চিৎকার করে ওঠে।