ঢাকার রাজপথে ছুরিবিদ্ধ বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রীর মেয়ে কৃষ্ণা রূপা

আজবাংলা   ঢাকা     শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার রাজপথে ছুরিবিদ্ধ হলেন বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রী সাধনচন্দ্র মজুমদারের মেয়ে শল্যচিকিত্‍‌‍সক কৃষ্ণা রূপা মজুমদার। কে বা কারা খাদ্যমন্ত্রীর মেয়ের উপর হামালা চালাল, তা এখনও পরিষ্কার নয়। শুক্রবার গভীর রাত পর্যন্ত থানায় অভিযোগ দায়ের হয়নি। সূত্রে খবর, কৃষ্ণা রূপা মজুমদার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক। মন্ত্রীর এক নিকট আত্মীয় জানান, এদিন বিকেলে তিন জন মুখোশধারী রূপার উপর অতর্কিতে হামলা করে। যদিও, আঘাত গুরুতর নয়। প্রাথমিক চিকিত্‍সার পর শুক্রবার রাতেই তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। হাসপাতাল থেকে বাবার বাড়িতে গিয়েই রয়েছেন। ‌ এর আগে গত বছরের মার্চে কৃষ্ণা মজুমদার রূপার স্বামী ডাক্তার রাজন কর্মকারের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়। পরিবারের দাবি, ছেলেকে খুন করা হয়েছে। কিন্তু, কে বা কারা তাঁকে খুন করল, তা নিয়ে ধোঁয়াশা কাটেনি। রূাপার স্বামীও ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। ঘটনার আগের দিন রাত ১২টা পর্যন্ত হাসপাতালে রোগীর অস্ত্রোপাচার করে, ইন্দিরা রোডের বাড়িতে ফিরে যান। ভোরে ঘুমের মধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়। ভিসেরা রিপোর্ট মৃত্যুর কারণ হিসেবে হার্ট অ্যাটাকের উল্লেখ রয়েছে। যদিও রাজনের পরিবারের দাবি তাঁকে খুন করা হয়েছে।এই হামলা পূর্ব পরিকল্পিত বলেই পুলিশের একাংশের ধারণা। ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান জানান, এই ঘটনায় এখনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। অভিযোগ দায়ের হয়নি বলে জানিয়েছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি আবুল হাসানও।