বিশ্বের সবথেকে উঁচু মূর্তি বানানোয় রাগ একসময়ের শাসক দেশ ব্রিটেনের ।

making the world's tallest statues is a time of anger, once the ruling country Britain
বিশ্বের সবথেকে উঁচু মূর্তি বানানোয় রাগ একসময়ের শাসক দেশ ব্রিটেনের

আজবাংলা গত ৩১ অক্টোবর গুজরাতে নর্মদা নদীর উপর তৈরি হওয়া ২০০০ টনের ব্রোনজের বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । মূর্তিটি উচ্চতায় ১৮২ মিটার। ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’র দ্বিগুণ উচ্চতার ‘স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বিদেশের বিভিন্ন পত্র পত্রিকায়। বিশ্বের সবথেকে উঁচু মূর্তি বানিয়ে বিভিন্ন দেশের প্রশংসা কুড়িয়েছে মোদী সরকার। তবে ভারতের এই মূর্তিতে মোটেই খুশি নয় একসময়ের শাসক দেশ ব্রিটেন। রাগ ও ক্ষবে ফেটে পড়েন কনজারভেটিভ পার্টির এমপি পিটার বোন ।  পিটার বোন বলেন কীভাবে তারা টাকাটা খরচ করবে, সেটা সম্পূর্ণ তাদের ব্যাপার। তবে যারা এত টাকা দিয়ে মূর্তি বানাতে পারে, তাদের কোনও অর্থ সাহায্য করা উচিৎ নয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে দেওয়া বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে সেখানকার রাজনীতিকরা জানিয়েছেন যে, তাঁরা মনে করেন বিশ্বের অন্যতম দ্রুত অর্থনৈতিক বৃদ্ধির দেশ হিসেবে ভারতকে অর্থ সাহায্য করার প্রয়োজন নেই। ভারত যে পরিমাণ বিদেশি অনুদান পায়, তার থেকে অনেক বেশি টাকা তারা নিজেরাই তুলনায় গরীব দেশকে দান করে।  বিভিন্ন খাতে ভারতকে প্রায় ১১ হাজার কোটির অর্থ সাহায্য করেছিল ব্রিটেন ।  মহিলাদের অধিকার, ধর্মীয় সহিষ্ণুতা সহ বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সচেতনতামূলক কাজের জন্য এই টাকা দেওয়া হয়েছিল ভারতকে।এই প্রসঙ্গে ব্রিটেনের একজন এমপি বলেন, ”আমাদের কাছ থেকে ১.১ বিলিয়ন পাউন্ড (প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা) সাহায্য নিয়ে ৩৩০ মিলিয়ন পাউন্ড (৩০০০ কোটি টাকা)-এর মূর্তি বানানো হয়েছে।” এই কাজকে ‘ননসেন্স’ বলে আখ্যা দেন তিনি।