নতুন বছরে জাঁকিয়ে শীতের বার্তা, আরও নামবে পারদ ,জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

নতুন বছরে জাঁকিয়ে শীতের বার্তা, আরও নামবে পারদ ,জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

ফের ব্যাটিং শুরু করেছে শীত। পশ্চিমী ঝঞ্ঝাকে মাঠে বাইরে পাঠিয়ে আরও একবার রাজ্যবাসীর হাড় কাঁপাতে সে প্রস্তুত। আবহাওয়া দফতরের মতে, নতুন বছরের গোড়ার দিকেই ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত নামতে পারে শীতের পারদ! আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকলেও বৃহস্পতিবারের তুলনায় আজ শুক্রবার পারদ কিছুটা নেমেছে।

আগামী কাল আসছে নতুন বছর, প্রথম দিন থেকেই শীত আরও বেশি পড়তে শুরু করবে বলে পূর্বাভাস রয়েছে। সব মিলিয়ে আগামী সপ্তাহেই জাঁকিয়ে বসতে পারে শীত। আজ কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় সকাল থেকে হালকা কুয়াশা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আকাশ পরিষ্কার হবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

এদিন সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। তবে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি নেমে হয়েছে ২২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জানা গেছে, নতুন বছরের প্রথম দিনেও কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে। পরের সপ্তাহের শুরুতে তা নামতে পারে ১২ ডিগ্রি পর্যন্ত। শীতলতম সপ্তাহ হতে পারে এটিই।

খাস কলকাতার তাপমাত্রা যদি ১১-১২ ডিগ্রিতে নামে, তা হলে জেলাগুলিতে তাপমাত্রা আরও কম থাকবে। এদিকে দিল্লির মৌসম ভবনের খবর, শুক্রবার থেকেই পাঞ্জাব, রাজস্থান, হরিয়ানায় ফের শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়ে যাবে। কনকনে ঠান্ডা নিয়ে হাজির হতে পারে উত্তুরে বাতাস। তার ফলে আগামী সপ্তাহেই পূর্ব ভারতের বিভিন্ন জায়গায় রাতের তাপমাত্রা ৩-৫ ডিগ্রি পর্যন্ত নেমে যেতে পারে।

উত্তর-পশ্চিম ভারতে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ক্রমশ এগোচ্ছিল পূর্ব ভারতের দিকে। এর জেরেই ধাক্কা খাচ্ছিল উত্তুরে হাওয়া। পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সরে যেতেই শীত বাড়ছে হু হু করে। তবে নতুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝা আসতে পারে জানুয়ারি শুরুতে। এখন ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে বিহার এলাকায় এবং বৃষ্টি অক্ষরেখা তৈরি হয়েছে রাজস্থান থেকে মধ্যপ্রদেশ পর্যন্ত। পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ও পুবালি হাওয়ার সংঘাতে বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে পূর্ব ভারতে। তাই গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে আরও। বৃষ্টি হতে পারে পুরুলিয়া, বাঁকুড়া,পশ্চিম বর্ধমান‌, বীরভূমে। দার্জিলিং ও কালিম্পঙও ভেজার সম্ভাবনা রয়েছে।