টিকটকের ফাঁদে নিখোঁজ হুগলীর গৃহবধূ

আজবাংলা   চুঁচু্ড়া     খুব অল্প সময়ে ভাল পরিচিতি ছড়িয়ে পড়ায় পাটনা, দিল্লি-সহ বিভিন্ন জায়গায় ডাক আসত তাঁর। কখনও স্বামীর সঙ্গে, কখনও বা একাই বিমানে চেপে পারি দিতেন তরুণী। ভিডিয়ো বানিয়ে মাসে কয়েক হাজার টাকাও আসছিল ঘরে। আপত্তি ছিল না স্বামীরও। বরং উত্‍সাহ দিতে দুটো দামি মোবাইলও কিনে দেন স্ত্রীকে। এরপরেই ঘটল বিপত্তি, গত ৩১ ডিসেম্বর দিল্লি যাবে বলে বাড়ি থেকে বের হয় তরুনী। ফিরে এসে রাজারহাটে যাওয়ারও কথা ছিল তাঁর। তবে তার পরিবার সূত্রে খবর, এদিন হাওড়া থেকে ট্রেন ধরার পরই ফোন বন্ধ হয়ে যায় তরুণীর। মাঝে একদিন ফোনে পাওয়া গেলে সে জানায় নিউ দিল্লিতে রয়েছে। সেখানে র‍্যাম্প শো করাবে বলে নিয়ে যায় এক অপরিচিত যুবক। তারপর থেকে আর যোগাযোগ করা যায়নি তরুণীর সঙ্গে। TikTok শেষে পুলিসে অভিযোগ জানিয়েছে প্রতিমা মন্ডলের স্বামী প্রসেনজিত্‍ মন্ডল।ঘটনাটি ঘেটেছে হুগলীর চুঁচু্ড়া ভগবতীডাঙায়। পরিবার সূত্রে কবর, সারাদিনই টিকটক ভিডিয়োতে ব্যস্ত থাকতেন ওই এলাকার বাসিন্দা প্রসেনজিত্‍ মন্ডলের স্ত্রী প্রতিমা মন্ডল, তাঁদের একটি পাঁচ বছরের মেয়েও রয়েছে। তাঁর প্রোফাইলের নাম ছিল জাসমিন। মাত্র ৯ মাসেই ৪ লাখ ২৮ হাজার ফলোয়ার জাসমিনের। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে কোন সংস্থা তাঁকে র‍্যাম্প শো-তে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন সেটা এখনও জানা যায়নি। তিনি কেন ওই অপরিচিত লোকেদের ডাকে দিল্লির ট্রেনে উঠলেন, সেই নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।