"বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য"এটাই আমাদের ভারত, মোদীর ডাকে বিপুল সাড়া

আজবাংলা     নোভেল করোনার প্রকোপ রুখতে রবিবার 'জনতা কার্ফু'র ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।রবিবার ছিল না কোনও সরকার নিয়ন্ত্রিত কারফিউ ৷ সবার কাছে আবেদন করা হয়েছিল ঘর থেকে যাতে কেউ না বেরোয়। মারণ করোনা ভাইরাসকে ঠেকাতে যাতে মানুষ ভিড় না করে এবং কমিউনিটি সংক্রমণ ঠেকাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্বাস্থ্য, সংবাদমাধ্যমের মতো জরুরি পরিষেবায় নিযুক্ত কর্মী, যাঁরা নিজেদের কথা না ভেবে অন্যদের সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন, হাততালি, থালা, কাঁসর, ঘণ্টা বাজিয়ে সন্ধ্যায় তাঁদের ধন্যবাদ জানাতেও সাধারণ মানুষকে আর্জি জানান তিনি। এঁদের কেউ চিকিত্‍সা পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত, তো কেউ আবার সংবাদ পরিবেশনে নিযুক্ত। এই সমস্ত মানুষদের ধন্যবাদ জানাতে এ বার একযোগে এগিয়ে আসতে দেখা গেল সাধারণ মানুষকে। সেই মতোই এ দিন সকাল থেকে কার্ফুতে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া মেলে। এ দিন সকাল থেকে রাস্তাঘাটে মানুষের দেখা মেলেনি। কিন্তু বিকাল ৫টা বাজতেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিজের নিজের বাড়ির বারান্দা এবং ছাদে জড়ো হন মানুষ জন। কেউ কাঁসর-ঘণ্টা, তো কেউ শাঁখ, কেউ আবার চামচ দিয়ে থালা বাজাতে শুরু করেন। কোথাও কোথাও আবার 'গো করোনা' স্লোগানও ওঠে। রবিবার সকাল থেকেই কলকাতার রাস্তায় যেন অন্যকিছুর ছোঁয়া। ধর্মতলা, পার্ক স্ট্রিটে রবিবাসরীয় সকালে কিছুটা হলেও যে ভিড় থাকে, সেখানে কাকপক্ষী ছাড়া আর কাউকে প্রায় দেখা গেল না।   https://twitter.com/ANI/status/1241696674516307968?ref_src=twsrc%5Etfw%7Ctwcamp%5Etweetembed%7Ctwterm%5E1241696674516307968&ref_url=https%3A%2F%2Fwww.anandabazar.com%2Fnational%2Fcoronavirus-in-india-people-ring-bell-to-thank-those-providing-essential-services-dgtl-1.1125849