ঘোষিত হল মোহনবাগান সভাপতির নাম । আজীবন সদস্যপদ সৌরভ ও প্রসেনজিত্‍ ।

Life membership Saurabh and PrasenjitLife membership Saurabh and PrasenjitLife membership Saurabh and PrasenjitLife membership Saurabh and Prasenjit
কার্যকরী সমিতি বেছে নিলেন তাঁদের সভাপতিকে

আজবাংলা  বুধবার দুপুরে ক্লাবে বসেছিল নবনির্বাচিত কার্যকরী সমিতির প্রথম বৈঠক। সেখানেই সভাপতি হিসাবে ঠিক হয় গীতানাথ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম। সচিব টুটু বোস তাঁর নাম প্রস্তাব করার সঙ্গে সঙ্গে তাতে সহমত জানান বাকিরা। এরপর সেখান থেকেই যোগাযোগ করা হয় গীতানাথবাবুর সঙ্গে। অনুরোধ করা হয় ক্লাবে এসে নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করতে। তারপরই উত্তর কলকাতার বাড়ি থেকে মোহনবাগান ক্লাবের উদ্দেশে রওনা দেন গীতানাথ গঙ্গোপাধ্যায়। ক্লাবে এসে প্রথমেই যান কার্যকরী সমিতির বৈঠকে। ফুল, মালা, মিষ্টিতে নতুন সভাপতিকে বরণ করে নেন সমিতির সদস্যরা।যখনই মোহনবাগান ক্লাবের বিরুদ্ধে কোনও মামলা-মোকদ্দমা হয়েছে, তিনি এগিয়ে এসেছেন। ক্লাবের স্বার্থে লড়াই করতে কখনও পিছপা হননি তিনি। মোহনবাগানের প্রত্যেক শিবিরের সঙ্গেই তাঁর সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ।  সভাপতি ছাড়াও এদিন বেছে নেওয়া হয় সহ-সভাপতিদের। এই পদে রয়েছেন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাপাধ্যায়, বীরু চট্টোপাধ্যায়, বলরাম চৌধুরি, চুনী গোস্বামী, অরূপ রায় এবং অসিত চট্টোপাধ্যায়ের মতো প্রবীণ ও অভিজ্ঞ সদস্যরা। পাশাপাশি আজীবন সদস্য করা হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, অভিনেতা প্রসেনজিত চট্টোপাধ্যায়, দেবশংকর হালদার এবং কিংবদন্তি ফুটবলার চুনী গোস্বামীকে ।অঞ্জন মিত্র সরে দাঁড়ানোয় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন সচিব টুটু বোসও। এবার সেই ২১ জনের কার্যকরী সমিতি বেছে নিলেন তাঁদের সভাপতিকে। ঐতিহ্যবাহী মোহনবাগান ক্লাবের সর্বাধিনায়কের পদ অলংকৃত করবেন বিখ্যাত আইনজীবী গীতানাথ গঙ্গোপাধ্যায়। এদিকে ক্লাবের তরফে হাওড়ায় খুব শীঘ্রই একটি অফিস খোলা হবে। আগামী বছর থেকে হাওড়ার মোহনবাগান সদস্যরা সেখানেই সদস্যপদ নবীকরণ করতে পারবেন। অফিস খোলার জন্য জায়গা দিয়েছেন মোহনবাগানের হকি সচিব মহেশ টেকরিওয়াল। সেই সভাতেই সর্বসম্মতিক্রমে বাগান সভাপতি পদে এলেন গীতানাথ। ক্লাবে যখন দুই গোষ্ঠীর কাজিয়া তুঙ্গে। তখন টুটুর পাশে ছিলেন এই প্রবীণ আইনজীবী। নির্বাচনী সভায় টুটু গোষ্ঠীর সমর্থনে গলা চড়িয়েছেন।