অস্ট্রেলিয়ায় বাড়ির মালিককে হত্যাচেষ্টায় আটক বাংলাদেশি ছাত্রী মোমেনা সোমার বিচার শুরু

Momena Shoma
মোমেনা সোমার

আজবাংলা   বাংলাদেশের ঢাকার কাজীপাড়ার মনিরুজ্জামানের মেয়ে মোমেনা সোমা গত ৯ ফেব্রুয়ারি উত্তর মেলবোর্নের মিল পার্কের এক বাড়িতে রজার সিনগারাভেলু নামের ৫৬ বছর বয়সী এক অস্ট্রেলীয় নাগরিককে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরি দিয়ে মারাত্মক জখম করেন ।  ২৫ বছর বয়সী মোমেনা সোমার শিক্ষার্থী ভিসায় অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে ল্যাট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে গিয়েছিল।  হত্যাচেষ্টা ও সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে আটক বাংলাদেশি ছাত্রী মোমেনা সোমার বিচার শুরু হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মোমেনা সোমার জবানবন্দি পেশ করেছে পুলিশ। মোমেনা সোমার দেওয়া জবানবন্দির ওপর ভিত্তি করে পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা ও সন্ত্রাসবাদের অভিযোগ এনেছে। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) পক্ষে কাউকে হত্যার অভিপ্রায় নিয়ে মোমেনা অস্ট্রেলিয়ায় আসে বলে জানিয়েছে মেলবোর্নের পুলিশ। এই ধরনের আরো খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পাতায় লাইক করুন

 

 

রজার সিনগারাভেলুর হত্যাচেষ্টা করার ঘটনায় পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে মোমেনা তাঁর সঙ্গে আইএসের যোগসূত্র রয়েছে বলে স্বীকার করেন। রজারের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত কোনো বিরোধ নেই জানিয়ে মোমেনা সোমার বলেন, ‘সে রজার সিনগারাভেলু হতে হবে এমন না, যে কেউ হতে পারত। রজার সিনগারাভেলুরকে সহজে হত্যা করা যেত আর তাই তাঁকে হত্যার চেষ্টা করেছি বলে জানান মোমেনা সোমার  ।  মোমেনা সোমার আরও বলেন, ‘ঘটনার দিন সকালে আমি আইএসের গণমাধ্যম শাখা আল হায়াতে প্রচারিত একটি ভিডিও দেখেছিলাম। ওই ভিডিওটির শিরোনাম ছিল যুদ্ধের আগুন। আমি দায়বদ্ধ অনুভব করছিলাম।’ ওই ভিডিওটি দেখার পর নিজেকে পরাজিত বলে মনে করেন মোমেনা সোমার। ভিডিওটির মতো ধর্মযুদ্ধে অংশ নিতে না পারার ক্ষোভ জন্মায় তাঁর মধ্যে। তাই আর কিছু না ভেবেই রান্নাঘর থেকে ছুরি নিয়ে রজার সিনগারাভেলুর ওপর হামলা চালান মোমেনা সোমার ।