কলকাতার আকাশে উড়ছে টাকা। আর যা কুড়োতে ভিড় সাধারণের।

আজবাংলা কিন্তু সত্যি সত্যি যে আকাশ থেকে টাকার বৃষ্টি হবে তা কে জানত! এমনটাই হল কলকাতায়। একেবারে কলকাতায় শহরের প্রাণকেন্দ্রে ডালহৌসির বেন্টিঙ্ক স্ট্রিটে। আর তা কুড়োতে হুড়োহুড়ি পড়ে গেল সেখানকার দোকানদার, পথচলতি মানুষদের মধ্যে। ১০০, ৫০০ ও ২০০০ টাকার বান্ডিল ছিঁড়ে খোলামকুচির মতো উড়ে আসছে টাকা।

সন্ধ্যার মুখে এমনই কাণ্ড দেখে হইহই রইরই অবস্থা কলকাতার ২৭ নম্বর বেন্টিঙ্ক স্ট্রিটের একটি বহুতলের সামনে। ওই বহুতলের ওপরের কোনও একটি তল থেকেই এই টাকার বৃষ্টি হয়েছে বলে বুঝতে পারে আমজনতা। প্রথমদিকে মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হলেও পড়ে শুরু হয়ে যায় টাকা কুড়ানোর হিড়িক। অনেককেই নোট কুড়িয়ে পকেটে ঢুকিয়ে মনের আনন্দে বাড়ির পথ ধরতে দেখা গিয়েছে। কেউ কেউ অবশ্য এই দৃশ্যের ভিডিও করেছেন। আর যে জায়গায় এই ঘটনা ঘটেছে সেখান থেকে আয়কর ভবনের দূরত্ব মেরেকেটে ২০০ মিটারও নয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ওই বহুতলে বেশ কয়েকটি বেসরকারি সংস্থার অফিস রয়েছে। হক মার্কেন্টাইল প্রাইভেট লিমিটেড নামে এক সংস্থায় আয়কর দফতরের হানা হয়েছিল। আর আয়করের হাত থেকে বাঁচতেই ওই অফিসের টয়লেটের জানালা দিয়ে টাকার বান্ডিল ফেলে দেয় কর্মীরা। জানা গিয়েছে, টাকার বান্ডিলগুলি রীতিমতো লাঠি দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে ঠিক কত টাকা ফেলা হয়েছে রাস্তায় সেটা এখনও জানা যায়নি। পুলিশ ও নিরাপত্তারক্ষীরা আসার আগে পর্যন্ত অনেক পথচলতি মানুষ টাকা কুড়িয়ে চম্পট দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাস্থলে রয়েছে বেন্টিঙ্ক স্ট্রিট থানার পুলিশ। এমনিতে অভিযোগ হল, এই এলাকায় চার্টার্ড ফার্মের আড়ালে ভুয়ো ব্যবসা চলে বহু জায়গায়। নোটবন্দির সময়েও দেখা গিয়েছিল কত অফিস থেকে বান্ডিল বান্ডিল টাকা উদ্ধার হয়েছে। ফের এদিন দেখা গেল।