দুটি বাইকের সামনে ধাক্কা ট্রাক্টরের।ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হলো এক ব্যক্তির।

motorcycle. The death of a person in the accident.
ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হলো এক ব্যক্তির

আজবাংলা মালদা : পরপর দুটি বাইকের সামনে ধাক্কা ট্রাক্টরের।ঘটনাস্থলেই ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হলো এক ব্যক্তির।গুরুতর আহত হয়েছেন ওপর বাইকের তিন আরোহী।ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দুপুরে মালদার রতুয়া থানার নাককাটটি ব্রিজে।ঘটনকের পর থেকেই প্রায় কয়েক ঘন্টা ব্রিজের ওপর দিয়ে যান চলাচল স্তব্ধ হয়ে যায়।রতুয়া থানার পুলিশ পৌঁছে দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর পাশাপাশি যান চলাচল স্বাভাবিক করেন।পলাতক ঘাতক ট্রাক্টর সহ চালক। পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, মৃত ব্যক্তির নাম জিয়াউল হক(২৯)।হরিশচন্দ্রপুর থানার দেগুন এলাকার বাসিন্দা।তিনি পেশায় একজন পশু চিকিৎসক।প্রত্যক্ষদর্ষীরা জানান,মহানন্দাটোলা থেকে বালুপুর এলাকার দিকে বাইকে করে যাচ্চিলেন জিয়াউল বাবু।ব্রিজে তার সামনে অন্য একটি বাইকে ছিলো তিন যুবক।ব্রিজের ওপর একটি বেপরোয়া ট্রাক্টর প্রথমে সামনের তিন যুবক আরোহীর বাইকে ধাক্কা মারে।তারপর ট্রাক্টরটি ধাক্কা মারে সামনের জিয়াউল বাবুর মটর বাইকটিতে।রাস্তায় ছিটকে পড়লে তার ওপর দিয়ে ট্রাক্টর চলে যায়।স্থানীয়রা ছুটে এসে আহত তিন যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান।তারপর ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা ব্রিজের ওপর যান চলাচল বন্ধ করে দেন।এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসেন রতুয়া থানার পুলিশ।দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর পাশাপাশি যান চলাচল স্বাভাবিক করেন। স্থানীয়দের অভিযোগ ,রোজ এই ব্রিজে দিন রাত সমান মদ্যপ যুবকেরা গোলমাল পাকায়।এই ব্রিজে কোনো যানবাহন চলাচলে নিয়ন্ত্রণ নেই।প্রশাসন এই ব্রিজে শিগ্রই যান নিয়ন্ত্রণের সুব্যবস্থা করুক।তবে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে ঘাতক ট্রাক্টর সহ চালক পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।ঘাতক ট্রাক্টরের খোঁজে  ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রতুয়া থানার পুলিশ।