কলকাতায় বসে কল সেন্টারের নামে আর্থিক প্রতারণায় গ্রেপ্তার চার যুবক

name of call center, financial fraud, in Calcutta
আর্থিক প্রতারণায় গ্রেপ্তার চার যুবক

আজবাংলা  কল সেন্টারের নাম করে একটি ভুয়ো সংস্থা খুলে বিগত আট মাস ধরে রমরমিয়ে চলছিল বিদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে তুলেছে কোটি কোটি টাকা অভিযুক্তরা। চার যুবককে গ্রেপ্তার করেছে লালবাজারের সাইবার ক্রাইম শাখার পুলিশ। ধৃতদের নাম আনোয়ারুল মোল্লা, মহম্মদ সাহিল কুরেশি, মহম্মদ আমিরুল হক ও আখতার আলম।পুলিশ সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই সাইবার ক্রাইম শাখার কাছে দেশের বাইরে থেকে প্রতারণার অভিযোগ আসছিল। অভিযোগ আসছিল, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকা থেকে এবং অভিযোগকারীরা বেশিরভাগই বয়স্ক ব্যক্তি বা মহিলা। জানা গিয়েছে, অভিযোগ পাওয়ার পরই গোপনে এই চক্রের খোঁজ শুরু করেন লালবাজারের সাইবার ক্রাইম শাখা। ধৃতের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ পাওয়ার পরই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর অত্যাধুনিক গ্যাজেট। যেগুলির সাহায্যেই এই প্রতারণা চক্র চালাত তারা। পাশাপাশি, উদ্ধার হয়েছে একটি মার্সেডিজ গাড়ি। বিদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা তুলত অভিযুক্তরা। কাউকে বলা হত সফটওয়্যার আপডেট করে দেওয়া হবে অথবা কাউকে বলা হত অ্যান্টি-ভাইরাস ইনস্টল করে দেওয়া হবে। লালবাজারের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, কোনও তথ্যপ্রমাণ না রাখার জন্য হোয়াটসঅ্যাপের সাহায্য নিয়েছিল অভিযুক্তরা। তারা যোগাযোগ করত হোয়াটসঅ্যাপের ভয়েস কলের মাধ্যমে। সেখানেই বিভিন্ন কাজের টোপ দিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হত বিদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে।