নিউইয়র্কে দীপাবলী উৎসবকে স্বীকৃতি দিয়ে পাবলিক স্কুলে ছুটি দাবী নাভার ।

Naveen Dipali festival in New York demanding holiday holidays in public school.
পাবলিক স্কুলে ছুটি দাবী নাভার

আজবাংলা   নিউ আমেরিকান ভোটারস এসোসিয়েশন (নাভা) এবং দীপাবলী কোয়ালিশন ফর স্কুল হলিডে দিব্য জ্যোতি মন্দিরের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে নিউইয়র্কে হিন্দু সম্প্রদায়ের দীপাবলী উৎসবকে স্বীকৃতি দিতে আহবান জানানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, সিনেট বিল এস ৫৩০৪ এবং অ্যাসেম্বলি বিল এ৪৩৩১ এর ফলে দীপাবলী উৎসবের দিনটি পাবলিক স্কুলের আনুষ্ঠানিক ছুটির দিন হিসেবে গণ্য হোক । দীপাবলীর দিনটিতে পৃথিবী জুড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ অজ্ঞতা এবং অন্ধকারকে দূর করে ন্যায় পরায়ণতা প্রতিষ্ঠায় প্রতিকীভাবে আলো জ্বালিয়ে আসছে। দীপাবলী পাঁচদিন ব্যাপী উৎসব। এ দিনে স্কুল ছুটি হওয়া খুবই জরুরী।সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক শহর কাউন্সিলের কাউন্সিলর ড্রোম, সিনেটর লিরয় ক্যামরি, অ্যাসেম্বলি মেম্বার ডেভিড আই ওয়েপ্রিন, কাউন্সিল সদস্য কস্টা কনস্ট্যান্টিনাইডেস, কাউন্সিলের সদস্য পল ভ্যালোনি (বেসাইড) । দীপাবলী উৎসবের দিনটি হিন্দু, জৈন এবং শিখ ধর্মের ধর্মাবলম্বীদের ছুটির দিন। সাম্প্রতিক হিসেব অনুযায়ী নিউইয়র্ক শহরবাসীদের প্রায় তিন লক্ষ মানুষ দীপাবলী উৎসবটি উৎযাপন করেন।কাউন্সিল সদস্য কস্টা কনস্ট্যান্টিনাইডেস, (অ্যাস্টোরিয়া) তার কুইন্সবাসী হিন্দু ভাইবোনদের সঙ্গে সারা বিশ্বের মানুষদের সুস্বাস্থ্য কামনা করে বলেন,  তারা এ সপ্তাহে দীপাবলী উৎসব উদযাপন করতে চায়।   এ সময় মি. কস্টা তার বক্তব্যে নিজের প্রচারণা করে বলেন,

Naveen Dipali festival in New York demanding holiday holidays in public school.
পাবলিক স্কুলে ছুটি দাবী নাভার

কাউন্সিল সদস্য কোস্টা কনস্ট্যান্টিনাইডেস, জেলা ২২- এটি প্রতিফলিত করার সময়। আসছে বছরটির সমৃদ্ধির জন্য প্রার্থনা করার কথা বলে সকলকে  একটা পরিবারের মত একসঙ্গে থাকবার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, সকল ধর্মকে সমানভাবে শ্রদ্ধা করার কথা সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিতে হবে। সকল বাচ্চাদেরকে দীপাবলী উদযাপন নিশ্চিত করতে নিউ ইয়র্ক শহরে দিনটিকে স্কুল ছুটির দিন হিসেবে সমর্থন সমর্থন করেন। কাউন্সিলের সদস্য পল ভ্যালোনি (বেসাইড), ছুটির দিন উদযাপনকারী সকলকে দীপাবলীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।  মি. পল দীপাবলী  উৎসবে শান্তি, সমৃদ্ধি, সুস্বাস্থ্য আর সকলের সুখি  উজ্জ্বল জীবন কামনা করেন। তিনি মনে করেন এই অস্থির সময়ের অন্ধকার দূর করতে  দীপাবলী উদযাপন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দীপাবলী উৎসব শহরের হিন্দু, জৈন ও শিখ সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষদের ধর্মীয় ছুটির দিনগুলোর মধ্যে অন্যতম। তিনি দিনটিকে সরকারি ছুটির দিন হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও স্বীকৃতি দিতে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। কাউন্সিলের সদস্য পল ভ্যালোনি নিউ আমেরিকান ভোটারস্ অ্যাসোসিয়েশনের আন্দোলনকে সমর্থন করে বলেন, ‘একসঙ্গে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে আমরা এই লক্ষ্য অর্জন করব।’  ডেমোক্রেটিক ডিস্ট্রিক্ট লিডার রিচার্ড ডেভিড বলেছেন, হিন্দুধর্ম ক্যারিবিয়ান থেকে দক্ষিণ এশিয়া ছড়িয়ে গিয়ে এখন বৈশ্বিক হয়ে উঠেছে। আর ছুটির দিন হিসেবে দীপাবলী এই ধর্মের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এই নিউইয়র্ক শহরে একটি বিরাট সংখ্যার মানুষ হিন্দু ধর্মাবলম্বী। ফলে সময় এসেছে দীপাবলীকে ঘোষণা করবার। আমাদেরকে দিয়ে এই সম্প্রদায়ের মানুষদের সহনশীলতার ছায়াতলে আনতে হবে। বিবেচনা করতে হবে। সততার সঙ্গে।এটা স্পষ্ট যে মেয়র বিল ডি ব্লাসিও তার দায়িত্বর স্বল্পমেয়াদে সকল নিউইয়র্কারদের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। শহরের মেয়র ও রাজ্যর আইন প্রণেতাদের  আমরা বলেছিলাম দীপাবলীকে ছুটির দিন হিসেব অন্তর্ভূক্ত করতে। দীপাবলীকে সরকারি স্কুল ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণার দাবিটি অতি সঙ্গত দাবি। সাংবাদিক সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি সদস্য, কর্মী, ফেইথ লিডাররা এবং নির্বাচিত কর্মকর্তারা। স্পিকারদের মধ্যে ছিলেন স্টেট সিনেটর লিরয় ক্যাম্রি, অ্যাসেম্বলি মেম্বার ডেভিড ওয়েপ্রিন, কাউন্সিল সদস্য ডনভান রিচার্ড, ব্যারি গ্রডেনচিক, পল ভ্যালোন, কস্টা কনস্ট্যান্টিনাইডেস, ডেমোক্রেটিক জেলা নেতৃবৃন্দ, ডা. নিতা জেইন, ডেভিড রিচার্ড এবং হৃতম্বীর চক্রবর্তী।