আপনি কি নিরামিষভোজী? তাহলে দেখে জিভে জল আনা পনিরের এই পদটি

আপনি কি নিরামিষভোজী? তাহলে দেখে জিভে জল আনা পনিরের এই পদটি

আজবাংলা:    পনির...যারা পনির ভালোবাসেন বা যারা নিরামিষ ভোজি তাঁদের কাছে পনির একটা গুরুত্বপূর্ণ খাবার। এই পনিরের হরেক রকমের আইটেম হয়। যেমন পালং পনির, চিলি পনির, মটর পনির। তবে এই সবই কম ঝালের। তবে যাঁরা একটু স্পাইসি খাবার পছন্দ করেন তাঁরা কিন্তু বাড়িতে ট্রাই করতেই পারেন পনির মশালা। পোলাও থেকে শুরু করে রুটি কিংবা পরোটা সবেতেই কিন্তু এই পদটা ভালই মানায়। তাই দেরি না করে এখনই দেখে নিন পনির মশালার রেসিপি।

কী কী লাগবে: 

পনির ১৫০ গ্রাম (টুকরো করে নিন)

 কাজু ১/২ কাপ

 পেঁয়াজ ৩টে কুঁচোনো 

টমেটো ৩টে কুঁচোনো

 রসুন ৩ কোয়া কুঁচোনো

 লঙ্কা: ৩টে 

আদা একটা ছোট টুকরো (কুঁচোনো)

 জল ১ কাপ

 পোস্ত ১ চা চামচ

 শুকনোলঙ্কা গুঁড়ো ১/২ চা চামচ

 গরম মশলা ১/২ চা চামচ

 ধনেপাতা প্রয়োজনমতো

 তেল: ২ টেবিল চামচ,

প্রণালি : কড়াই গ্যাসে বসিয়ে তেল দিন। তেল গরম হয়ে গেলে তাতে পনিরের টুকরো সোনালি করে ভেজে তুলুন। পনির ভাজা তেলেই কাজু ভেজে নিন। পেঁয়াজ কুচি তেলে দিয়ে বাদামী করে ভেজে নিন। এবারে সেই ভাজা পেঁয়াজ বেটে নিন। এরপর জলে টমেটো, আদা, রসুন একসঙ্গে দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। ঠান্ডা হলে একসঙ্গে বেটে নিন। পোস্ত ২-৩ মিনিট জলে ভিজিয়ে রেখে বেটে নিন।

এবারে তেল গরম করে তাতে বাটা পেঁয়াজ আবার ভাজুন। সেই সঙ্গে লঙ্কাগুলি লম্বালম্বি চিড়ে দিয়ে দিন। এরপর লঙ্কাগুঁড়ো, পোস্তবাটা দিয়ে নাড়তে থাকুন। টমেটো বাটা দিয়ে নাড়তে থাকুন তেল ছেড়ে আসা পর্যন্ত কষিয়ে নিন। এবার তাতে দিন নুন ও গরমমশলা। ঝোল বাড়ানোর জন্য জল দিন।

১০-১২ মিনিট এভাবে টগবগ করে ফোটা পরে ঢিমে আঁচে রান্না করুন। সবশেষে তাতে ভাজা পনির আর কাজুবাদাম দিয়ে আর একবার ফুটিয়ে নিয়ে ৫ মিনিট আঁচ কমিয়ে গ্যাসে বসিয়ে রাখুন। পরিবেশন করার সময় ধনেপাতা ছড়িয়ে দিতে পারেন। এবারে রুটি বা পরোটার সঙ্গে পরিবেশন করুন।