হোয়াটসঅ্যাপে জমা দেওয়া মনোনয়ন গ্রহণ করুক রাজ্য নির্বাচন কমিশন, জানাল হাইকোর্ট।

Calcutta High Court
কলকাতা হাইকোর্ট

আজবাংলা কলকাতা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে মনোনয়ন জমা নিতে বলে আদালত । পঞ্চায়েত নির্বাচনে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে আজ ফের হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বাম-কংগ্রেস-পিডিএস। মনোনয়ন বিজ্ঞপ্তি ঘিরেও ধোঁয়াশা রয়েছে বলে বিরোধীদের অভিযোগ। ফের কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের দাবিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বিজেপিও। সকাল সাড়ে ১০টায় বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের এজলাসে পঞ্চায়েত মামলার শুনানি শুরু হয় । ভাঙড়ের ৯ প্রার্থীর হোয়াটসঅ্যাপে জমা দেওয়া মনোনয়ন গ্রহণ করুক রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

 

অন্যথায় নির্বাচন প্রক্রিয়া স্থগিতের পথে হাঁটতে পারে আদালত, জানাল হাইকোর্ট। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে মনোনয়ন জমা নিতে বলে আদালত বিরোধীদের অন লাইনে মনোনয়ন জমা দেওয়ার দাবিকেই মান্যতা দিল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বাড়ছে না মনোনয়নের সময়সীমা। আদালতে কংগ্রেস-বিজেপির আর্জি খারিজ। দুই মামলাতেই হস্তক্ষেপে নারাজ হাইকোর্ট। এমনকি নির্বাচনী প্রক্রিয়াতেও আদালত হস্তক্ষেপ করবে না বলে জানিয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টায় বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের এজলাসে পঞ্চায়েত মামলার শুনানি শুরু হয়। স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়েরের জন্য আদালতে অনুরোধ জানান সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। আদালতে নির্বাচন কমিশন জানায়, গতকাল জেলা পরিষদে ২৬৭টি, পঞ্চায়েত সমিতিতে ১৩৩৭টি এবং গ্রাম পঞ্চায়েত আসনে ৪০৯৭টি মনোনয়ন জমা পড়েছে।  মনোনয়ন বিজ্ঞপ্তি ঘিরেও ধোঁয়াশা রয়েছে বলে বিরোধীরা অভিযোগ তোলে। ফের কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের দাবিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় বিজেপিও।