দু’হাতে পতাকা নিয়ে ফুটবল মাঠে নগ্ন যুবতী

Nude young girl in the football field with flags in both hands
ফুটবল মাঠে নগ্ন যুবতী

আজবাংলা শনিবার সেখানে রিন্সবুরসা বয়েজ ও এএফপির মধ্যে খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় রিন্সবুরসা বয়েজ ক্লাবের ভক্তরা খেলার চেয়ে আরো একটু এগিয়ে গেলেন। তারা ভাড়া করলেন প্রাপ্ত বয়স্কদের বিনোদন দানকারী ফক্সিকে। তিনি এক যুবতী। তার শরীরে পোশাক বলতে ছিল কালো একজোড়া মোজা। এ ছাড়া শরীরের কোথাও কোনো কাপড় ছিল না। সারা দেহে অর্থাৎ স্পর্শকাতর অঙ্গগুলোতে ছিল ট্যাট্টু আঁকা। ফুটবলে যৌনতার ছোঁয়া এনে নিজেদের দেশের নামের সঙ্গে ‘সেক্সি ফুটবল’ যোগ করলেন ডাচ ফুটবল ভক্তরা। ওই খেলায় রিন্সবুরসা বয়েজ ওই খেলায় ৬-২ গোলে হারায়। পরে ফক্সি নামের ওই যুবতী বলেছেন, যদি আপনি ফুটবলের মাঠকে গরম করে তুলতে চান তাহলে এমনটা করতে হয়। এ ঘটনার পর আমাকে একটি হট ড্রিক নিতে হয়েছিল। আমি এরপরে আমার পরবর্তী কাজ করতে চলেছি। আমি সাধারণত নগ্ন শো করে থাকি। কিন্তু সেদিন যা করেছি তা ছিল একটি স্বাগত জানানোর মতো বিষয়। অবশ্যই আমি এমন কাজ আরো করতে পারি। খেলা চলা অবস্থায় তিনি সেভাবেই দৌড়ে প্রবেশ করেন মাঠে। দু’হাতে ধরা ছিলেন পতাকার মতো দেখতে একটি সাদা কাপড়। তিনি যখন দৌড়াচ্ছিলেন তখন সেই কাপড়টি পিছনে উড়ছিল। এক পর্যায়ে তিনি দৌড়ে একজন খেলোয়াড়ের সামনে চলে যান। তার দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেন। এরপর দৌড়ে গিয়ে মাঠের এক কোণা দিয়ে বেরিয়ে যান। এ খবর ও ছবি প্রকাশ করেছে অনলাইন দ্য সান। এতে বলা হয়, এমন অবস্থাকে চেলসির প্রাক্তন তারকা ও হল্যান্ড ফুটবলের কিংবদন্তি রুত গুলিত বর্ণনা করতে যে বাক্যটি ব্যবহার করে থাকেন তা হলো ‘সেক্সি ফুটবল’।