নদীয়ায় মাত্র দু'জন শিক্ষিকার দায়িত্বে সমগ্র স্কুল, বিক্ষোভ ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের

মলয় দে আজবাংলা কৃষ্ণনগর স্কুলে ছাত্রছাত্রী এর সংখ্যা প্রায় ১৩০ জন।কিন্তু তাদের শিক্ষা দান করার জন্য শিক্ষিকা মাত্র দুই জন।আর এই ঘটনার দাবিতে সোমবার স্কুলে পযাপ্ত শিক্ষকের দাবিতে বিক্ষোভ দেখালেন স্কুলের ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকরা।সোমবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার কোতোয়ালি থানার কালীরহাটে।সূত্রের খবর,কালীরহাটের দুর্গাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র ছাত্রী সংখ্যা শতাধিক হলেও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা কে ধরে শিক্ষকের সংখ্যা মাত্র ২।অভিযোগ,শিক্ষক কম থাকার কারণে স্কুলের পঠন পাঠন এর মান তলানিতে এসে ঠেকেছে।অভিযোগ,শিশু শ্রেণী থেকে ৪ পর্যন্ত ক্লাসে শিক্ষকের অভাবে কোনোদিনই ঠিক মতন পঠন পাঠন হয় না।ফলে এই স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা অন্য স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে পড়ছে।অভিযোগ,বারবার স্কুলে শিক্ষকের সংখ্যা বাড়ানোর দাবী জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।আর এর পরই সোমবার স্কুল বন্ধ করে শিক্ষক এর দাবীতে বিক্ষোভ দেখান স্কুলের পড়ুয়া ও তাদের অভিভাবকরা।যদিও স্কুলের শিক্ষিকাদের তরফে অসুবিধার কথা স্বীকার করা হয়েছে।বিষয়টি খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা পরিদর্শক(DI)।