দোলেও রাজ্যে থাকবে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রকোপ। ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা !

আজবাংলা    ইতিমধ্যে আবহাওয়া দপ্তর দক্ষিণবঙ্গে পূর্বাভাস জারি করেছে যে প্রাকৃতিক দুর্যোগ অর্থাৎ বৃষ্টিপাত এবং বজ্রপাত দুটোর পরীমনি প্রচুর পরিমাণে সপ্তাহজুড়ে । রবি সোম আকাশ একটু পরিস্কার হতে দেখা যেতে পারে কিন্তু মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে আবার বৃষ্টিপাতের তোড়জোড় । আবার চরম বৃষ্টির সম্মুখীন হবে পশ্চিমের জেলা গুলো । আজকের আবহাওয়া খুব একটা পরিষ্কার থাকবে তা নয় । ঝড় এবং বৃষ্টির দাপট বাড়তে চলেছে উত্তর এবং দক্ষিণ দুই বঙ্গতেই । কোন কোন রাজ্যে কোন মেঘ ঢেকে থাকবে সারাদিন জুড়ে কোথাও হবে প্রবল বৃষ্টিপাত কথাও হবে ঝড়ের দাপট আবার কোন কোন জায়গায় আংশিক মেঘলা লক্ষ্য করা যাবে । কিন্তু আজকের দিনটা পুরোটাই কাটবে মেঘলা ঝড় বৃষ্টির উপরে আকাশ পরিষ্কার হওয়ার কোন সম্ভাবনাই নেই আবহাওয়া দপ্তর এর মতে । গণেশ কুমার দাস আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের থেকে জানায় যে আজকের দিনে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে না বাড়বে হয়তো রবিবার এবং সোমবার আবহাওয়া একটু পরিষ্কার হতে দেখা যেতে পারে কিন্তু মঙ্গলবার থেকে শুরু হবে আবার সেই বৃষ্টি বজ্রবিদ্যুৎ ঝড় । মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার অবনতি হবে ক্রমশ । অনুমান করা যাচ্ছে রঙের উৎসব দোল আবহাওয়া পরিষ্কার থাকবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা যথেষ্ট কম । হয়তো পশ্চিমের জেলাগুলির আবহাওয়ার একটু অবনতি হতে পারে হতে পারে হালকা বৃষ্টিপাত । আবহাওয়া দপ্তরের মতামত অনুযায়ী তবে রবিবার থেকে কমবে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট এবং উত্তর-পশ্চিম হওয়ার আগমন ঘটবে । উষ্ণতা খুব একটা থাকবে না বললেই চলে সকাল বেলার দিকে বেশ শীতল আবহাওয়ায় থাকবে বলে অনুমান ।আবার ঘূর্ণবাত লক্ষ্য করা যায় উত্তরবঙ্গের দিকে,, এর প্রভাবে কলকাতা ,, দুই ২৪ পরগনা,, নদীয়া এবং মুর্শিদাবাদের ভারী বর্ষণের মনোভাব লক্ষ্য করা যায় । আজকে সকাল কলকাতায় সামান্য বৃষ্টিপাত লক্ষ্য করা যায় । আজ সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। গতকাল সর্বনিম্ন তাপমাত্র ছিল ২২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি কম। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ ৩৬ থেকে ৯৩ শতাংশ। মঙ্গলবার থেকে কলকাতায় বর্ষণের প্রভাব কমে গেলেও অসম এবং মেঘালয় ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা থেকেই যাবে । রবিবার অবদি এই আবহাওয়া থাকলেও ১০ই মার্চ থেকে পরিবর্তন হবে আবহাওয়া অনুমান আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের ।