পাকবাহিনীর প্রশাসনিক সদর দপ্তরে ভারতীয় সেনাবাহিনী হামলা

Pak army office attacks India
পাক সেনা দফতরে হামলা ভারতের

আজবাংলা  ২৩ অক্টোবর পুঞ্চে ব্রিগেড সদর দফতর-সহ সেনার ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালায় পাক সেনা। জবাবে আজ পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের খুইরাট্টা ও সামানিতে পাক সেনার প্রশাসনিক সদর দফতরে লক্ষ্য করে হামলা চালায় ভারতীয় সেনা। সেনার তরফে জানানো হয়েছে, সীমান্ত এলাকার গ্রামবাসীরা পাক সেনার দফতর থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখেছেন। তাছাড়া পাক-অধিকৃত কাশ্মীর থেকে পাওয়া তথ্যেও জানা গিয়েছে, ভারতীয় হামলায় বেশ ভালই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাক সেনার দফতর। সেনার দাবি, সংযম বজায় রেখেছে ভারত। তাই নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের হাজিরা, বান্ডি গোপালপুর, নিকিয়াল, সামানি ও খুইরাট্টার জনবসতি অঞ্চল লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়নি। হামলার একটি ভিডিয়োও প্রকাশ করেছে সেনা। সেনার দাবি, ২০১৭ সালে ভারতের পাল্টা হামলায় পাকিস্তানের ১৩৮ জন সেনা নিহত হন।  জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ এবং ঝালাস অঞ্চলে ভারতীয় সেনার ব্রিগেড দফতর লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছিল পাকিস্তানি সেনা। তার জবাবে পাক- অধিকৃত কাশ্মীরের খুইরাট্টা এবং সামানি এলাকায় পাক সেনার সদরে হামলা চালানো হয়েছে বলে আজ দাবি করল ভারতীয় সেনা। ভারতীয় সেনাবাহিনী অপারেশনের সময় সর্বাধিক সংযম ব্যবহার করেছিল। “ভারতীয় পক্ষটি সচেতনভাবে হজির, নিকিয়াল এবং সামানীর পাকিস্তান শহরগুলিতে বেসামরিক জনসংখ্যার লক্ষ্যবস্তু বা হয়রানি করা থেকে বিরত থাকে, যা এলওসি এর নিকটতম কাছাকাছি রয়েছে”।  পুঞ্চের প্রতিবেশী গ্রামে বসবাসরত ব্যক্তিরা দাবি করেছে যে তারা আক্রমণের সাইট থেকে ধোঁয়াদেখেছে।