চাঁদের মাটিতে ফলানো যাবে শাক-সবজি!

চাঁদের মাটিতে ফলানো যাবে শাক-সবজি!

আজ বাংলা: এবার চাঁদের মাটিতে করা যাবে শাক সব্জির চাষ! কি শুনে চমকে গেলেন তো? হ্যাঁ বেশ কিছুদিন ধরে চাঁদের জমিতে চাষ করার ইচ্ছা নিয়ে কাজ করে চলেছে চিন।

এদিকে চিনা মহাকাশযান চেঙ্গি-৫ গত সপ্তাহের শেষে সফলভাবে চাঁদ থেকে প্রায় ১৭৩১ গ্রাম মাটি এবং শিলা নিয়ে পৃথিবীতে ফিরে এসেছে। বিজ্ঞানীরা এখন চাঁদ থেকে আনা এই নমুনাগুলি বিশ্লেষণ ও গবেষণা করে বুঝতে চাইছেন কীভাবে এই মাটি ব্যবহার করা যায়।

রিপোর্ট অনুযায়ী, বিজ্ঞানীরা দেখেছেন চাঁদের মাটিতে কোনও জৈব পুষ্টি নেই। এটা খুব শুকনো। এই মাটি শাক সবজি জন্মানোর পক্ষে বা আলু চাষের পক্ষে ভালো নয়। চাঁদের মাটি শাক সবজি জন্মানোর মতে না। তবে এটি অন্যান্য জিনিসের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, দীর্ঘমেয়াদী সৌর বায়ু চাঁদের মাটিতে প্রচুর পরিমাণে হিলিয়াম-৩ প্রবেশ করিয়েছে। যা থার্মোনক্লিয়ার সংশ্লেষণের মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যেতে পারে।

তবে এটা এমন নয় যে, চিন প্রথম চাঁদে এমন চাষ করার চেষ্টা করছে। ২০১৩ সালের পর তৃতীয়বারের মতো চিন চাঁদে পৌঁছেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে, ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে একটি চিনা মহাকাশযান চ্যাং-ই ৪ একটি ছোট রোবোটিক রোভারের মাধ্যমে চাঁদের অনেক গভীরে পৌঁছে গিয়েছিল। যা ইতিহাস সৃষ্টি করে।

আমেরিকা ৪০ বছর আগে চাঁদের নমুনা সংগ্রহ করতে মহাকাশযান পাঠিয়েছিল। তারপর এটা চিনের প্রথম প্রচেষ্টা। এখন দেখার চিনা বিজ্ঞানীরা আদৌ কি চাঁদের মাটিতে কোনও ভাবে শাক সবজি ফলাতে পারেন, নাকি ব্যর্থ হবে চিনের এই স্বপ্ন।