বেআইনি মদের ঠেকে পুলিশের হানা, মদ্যপদের  মহিলা সিভিক ভোলেন্টিয়ারের বাড়িতে হামলা

Police attacking illegal liquor
বেআইনি মদ
 Police attacking illegal liquor
বেআইনি মদ

আজবাংলা মালদা বেআইনি মদের ঠেকে পুলিশের হানা । আর পুলিশ ফিরে যেতেই মহিলা সিভিক ভোলেন্টিয়ারের বাড়িতে মদ্যপদের  হামলা ।  চলে ভাংচুর , ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় ওই সিভিক ভোলেন্টিয়ার সহ বাড়ির তিন জন সদস্যকে । ঘটনায় একজনের অবস্থা গুরুতর থাকায় তাকে কলকাতা স্থানান্তরিত করা হলেও বাকিদের চিকিৎসা চলছে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে । ঘটনাটি ঘটেছে মালদার পুরাতন মালদা থানার মুচিয়া মহাদেবপুর এলাকায় ।জানা যায় মুচিয়া মহাদেবপুর এলাকায় বেআইনি মদের ঠেক সহ বিভিন্ন রকম অসামাজিক কাজকর্ম চালাত স্থানীয় বাসিন্দা শিদাম মন্ডল এবং উত্তম মন্ডল । গোপন খবরের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে মালদা থানার পুলিশ এলাকায় বেআইনি মদের ঠেকের বিরুদ্ধে অভিযান চালায় । পুলিশ এলাকা ছাড়তেই শিদাম এবং উত্তমের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন মদ্যপ অবস্থায় স্থানীয় ওই সিভিক ভোলেন্টিয়ার বাসন্তী মন্ডলের বাড়িতে চড়াও হয় বলে অভিযোগ । মদ্যপদের দাবি মদের ঠেকের খবর এই সিভিক ভোলেন্টিয়ারই থানায় জানিয়েছে  । আর এই অভিযোগ তুলেই বাসন্তীর বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায় মদ্যপরা । চলে ভাংচুর । বাসন্তীকে আক্রান্ত হতে দেখে তার ভাই শম্ভু মন্ডল বাঁচাতে এলে তাকেও বেধড়ক মারধর করে এলোপাথাড়ি কোপানো হয় । ঘটনা থেকে রেহাই পায়নি বাসন্তীর কাকা গয়া মন্ডলও । তাকেও এলোপাথাড়ি কোপানো হয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে বলে অভিযোগ । বাসন্তী এবং তার পরিবারের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে শিদাম এবং উত্তম আর তার দলবল ঘটনা স্থল থেকে পালিয়ে যায় । পরে স্থানীয়রাই  উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে আহত দের । ঘটনায় বাসন্তীর ভাই শম্ভু মন্ডলের অবস্থা গুরুতর থাকায় তাকে রাতেই স্থানান্তরিত করা হয় কলকাতায় । বাসন্তী এবং তার কাকা গয়া মন্ডলের চিকিৎসা চলছে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে । লিখিত অভিযোগ ভিত্তিতে মালদা থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলেও অভিযুক্তরা পলাতক ।