থানায় ডেকে যুবককের গোপনাঙ্গে বিছুটি পাতার রস ঘসে দিলেন পুলিশকর্মীরা

পূর্ব বর্ধমানে
পূর্ব বর্ধমানে

আজবাংলা পূর্ব বর্ধমান   দুই যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ স্থানীয় এক গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত করার। সেই অভিযোগে দুই যুবককে থানায় ডেকে গোপনাঙ্গে বিছুটি পাতার রস ঘসে দিলেন পুলিশকর্মীরা। অভিযোগ শুধু তাই নয়, তাদের নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল করে দেওয়ায় হুমকিও দেওয়া হয়। পুলিশকর্মীদের এমন আচরণে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই দুই কলেজ ছাত্র। তবে বরাতজোরে প্রাণে গিয়েছে তারা। ঘটনার শোরগোল পড়েছে পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের উখরিদ গ্রামে।  গত মঙ্গলবার থানায় একটি মৌখিক অভিযোগ জানান স্থানীয় এক গৃহবধূ দাবি, গত কয়েক দিন ধরে তাঁকে উত্ত্যক্ত করছে গ্রামের চারজন যুবক। পুলিশের কাছে ওই চারজনকে সতর্ক করে দেওয়ার আরজি জানান ওই গৃহবধূ। এরপরই অভিযুক্তদের খণ্ডঘোষ থানায় ডেকে পাঠান ওসি।  তাঁর পর সকাল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত থানায় বসিয়ে রেখে অমানবিক ভাবে ওই চারজনকে মারধর করে গোপনাঙ্গে বিছুটি পাতা ঘসে দেওয়া হয়। ও তাদের নগ্ন ছবিও তুলে রাখেন পুলিশকর্মীরা। সেই ছবি আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকিও দেয় ওসি। ঘটনাটি জানাজানি হয়ায় থানা থেকে ফেরার পর ওই চারজনকে কটূক্তি করেন পাড়া প্রতিবেশীরা। অপমানে একজন গলা দড়ি দিয়ে আর এক জন বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। প্রাণে বেঁচে গিয়েছে দু’জনই। একজন ভরতি বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে । পূর্ব বর্ধমানের পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) প্রিয়ব্রত রায় জানিয়েছেন, ওই ওই দুই ছাত্রের মেডিক্যাল রিপোর্ট ও ইনজুরি রিপোর্ট খতিয়ে দেখা হচ্ছে বর্ধমানের খণ্ডঘোষের উখরিদ গ্রামেগ্র এই ঘটনার  উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায়ত্ন।