ধনতেরাসের শুভলগ্নে সমৃদ্ধি কামনায় গৃহস্থ বাড়িতে কেন কেনা হয় মূল্যবান ধাতু৷

ধনতেরাস
ধনতেরাস

কবিতা মান্না  আজবাংলা ধনত্রয়োদশী বা ধন্বন্তরী-ত্রয়োদশী যা, সংক্ষেপে ধনতেরাস নামে পরিচিত। কার্তিক মাসের শুক্লপক্ষের এয়োদশী তিথিতে হয় ধনতেরাস ৷ ধনতেরাসের শুভ লগ্নে সমৃদ্ধি কামনায় গৃহস্থ বাড়িতে কেনা হয় মূল্যবান ধাতু ৷ বলা হয় যে, আজকের দিনে মূল্যবান ধাতুর জৌলুসে আকৃষ্ট হয়ে মা লক্ষী স্বয়ং আসেন গৃহস্থের বাড়িতে। আর সমৃদ্ধি লাভের জন্যই ধাতু কেনার প্রচলন এই সময়।

কিন্তু ধনতেরাস মানেই কী সোনা কিনতে হবে? শাস্ত্রমতে, এই সময় নিজের ক্ষমতা অনুযায়ী, যেকোনও শুদ্ধ ধাতুই কেনাই মঙ্গলজনক। তবে জ্যোতিষ শাস্ত্রমতে, বিভিন্ন রাশির জন্য বিভিন্ন ধাতু কেনা উচিত তবেই ধনতেরাস হয়ে উঠবে মঙ্গলজনক। আসবে সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধি। অবাঙালিদের ধনত্রয়োদশী উৎসবকে আপন করে নিয়েছে বাঙালি। তাদের অনুসরণ করেই ধনী থেকে সাধারণ, সব বাঙালিই মেতেছে সঞ্চয়ের উৎসবে। হুজুগ হলেও অবশেষে বেহিসেবী বাঙালি পা বাড়িয়েছে সঞ্চয়ের পথে। দীপাবলীর আগে থেকেই শুরু হয়েছে কেনাকাটা। সমৃদ্ধি কামনায় ক্ষমতা অনুযায়ী সবাই চাইছে ধনতেরাসে মূল্যবান কিছু ধাতু কিনতে। ধনতেরাসে শহর জুড়ে আলোর রোশনাই, গয়না ও বাসনের দোকানে উপচে পড়া ভিড়। ভারতীয় শাস্ত্র মতে, পাঁচদিনের দীপাবলি উৎসব সূচনা হয় এই ধনতেরাসের হাত ধরে। প্রথা মতো অশুভ শক্তি বিনাশের জন্য ধাতু কিনে প্রদীপ জ্বালিয়ে শুরু হবে ধনদেবীর আরাধনা।বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে:  ধনতেরাসের কেনাকাটা করার শুভক্ষণ:বাংলা তারিখ: ৭ কার্তিক ১৪২৬, শুক্রবার।ইং তারিখ: ২৫/১০/২০১৯। শুভক্ষণ: সন্ধ্যা ঘ ৭/৮ মিনিট থেকে রাত ঘ ৮/২২ মিনিট পর্যন্ত কেনাকাটা করার শুভ সময়। এই সময়ের মধ্যে পবিত্র কিছু জিনিস কিনলে লক্ষ্মীর আগমন ঘটে বলে মনে করা হয়।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!