লাদাখের বিজেপি সাংসদ সেরিং নামগিয়ালার বক্তৃতার প্রশংসায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আজবাংলা ৩৭০ অনুচ্ছেদ লোপ নিয়ে লোকসভার বিতর্কে লাদাখের বিজেপি সাংসদ সেরিং নামগিয়াল বলেন কাশ্মীরকে এখনও তাঁদের পারিবারিক সম্পত্তি বলে মনে করেন আবদুল্লা ও মুফতিরা। লাদাখের সাংসদ সেরিং নামগিয়াল বলেন ‘‘কাল থেকে অনেকেই দেখছি সাম্যের কথা বলছে। তাদের দাবি, ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্ত হলে কাশ্মীরিরা বঞ্চিত হবেন। তাঁদের কাছে আমার প্রশ্ন, এর আগে যখন কাশ্মীরের জন্য অনুদান এসেছে, তার ছিটেফোঁটাও লাদাখ পায়নি কেন? তখন তো কই কেউ সাম্যের কথা বলেনি!’’ সেরিংয়ের দাবি, লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মর্যাদা পাওয়ার আশা নিয়েই ভোট দিয়েছিলেন লাদাখের মানুষ। তিনি বলেন, ‘‘তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ যখন লাদাখে এসেছিলেন, তাঁকেও সাধারণ লাদাখবাসী কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্যই অনুরোধ করেছিলেন।’’ কংগ্রেস যত দিন জম্মু-কাশ্মীরে ক্ষমতায় ছিল, লাদাখে একটাও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৈরি করেনি বলে অভিযোগ করেন সেরিং। জানান, মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পরে লাদাখে প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হয়। তা ছাড়া,কাশ্মীরি ও ডোগরিকে তালিকাভুক্ত ভাষার মর্যাদা দেওয়া হলেও লাদাখের মানুষের ভাষাকে কোনও স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি বলেও অভিযোগ করেন সেরিং। কাশ্মীরের দুই প্রভাবশালী পরিবার— মুফতি এবং আবদুল্লাদের সমালোচনা করে সেরিং বলেন, ‘‘ওই দু’টি পরিবার তো কাশ্মীরকে নিজেদের সম্পত্তি ভাবে!’’ লাদাখের বিজেপির তরুণ সাংসদের বক্তৃতার প্রশংসা করে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা।প্রধানমন্ত্রী সেরিংয়ের বক্তৃতার ভিডিয়ো পোস্ট করে টুইট করেছেন— ‘‘লাদাখের ভাইবোনেরা কী চাইছেন, তা সুন্দর ভাবে ফুটে উঠেছে সাংসদের বক্তৃতায়। অবশ্যই শুনুন।’