পাকিস্তানে রাহুল গান্ধীই পাঠিয়েছেন আমাকে, নভজ্যোত্‍ সিং সিধু।

Rahul Gandhi sent me to Pakistan, Naveet Singh Sidhu
রাহুল গান্ধী ও নভজ্যোত্‍ সিং সিধু

আজবাংলা  সিধুকে পাকিস্তানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত বিবেচনা করতেও বলেন অমরিন্দার। অনুরোধ না রাখায় দলীয় সতীর্থকে কটাক্ষ করেছিলেন ‘ক্যাপ্টেন’। দেশে ফিরে এবার তাঁর বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন সিধু। তাঁর পালটা কটাক্ষ, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীই তাঁকে পাক সফরে পাঠিয়েছেন। তিনিই আমার ‘ক্যাপ্টেন’।  সেনাবাহিনীর প্রাক্তন ‘ক্যাপ্টেন’ অমরিন্দার আমার ক্যাপ্টেন নন। বুঝিয়ে দিয়েছেন, অমরিন্দারের কথায় গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করছেন না নভজ্যোত্‍ সিং সিধু। শুক্রবার তেলেঙ্গানায় এক সাংবাদিক বৈঠকে সিধুর কটাক্ষ, রাহুল শুধু তাঁর নন, কংগ্রেসের সমস্ত নেতারই ‘ক্যাপ্টেন’। অমরিন্দার সিং সেনা-র প্রাক্তন ‘ক্যাপ্টেন’। রাহুল ক্যাপ্টেনের ক্যাপ্টেন। পাকিস্তান সফর তাঁর একান্ত ব্যক্তিগত। এবং রাহুলের সম্মতি নিয়েই সেখানে গিয়েছিলেন। এখানেই না থেমে সিধু জানান, আরও অন্তত ২০ জন কংগ্রেসের উচ্চপদস্থ নেতা তাঁকে পাকিস্তান যেতে উত্‍সাহিত করেছেন। দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফেও তাঁর সফরে উত্‍সাহ পেয়েছেন। পাক সফর নিয়ে ক্যাপ্টেন অমরিন্দার সিং প্রকাশ্যেই তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্য সিধুর সমালোচনা করেছেন। সরব হয়েছেন বিরোধীরাও। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরসিমরত কৌর বাদল থেকে শুরু করে বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী, তোপ দেগেছেন অনেকেই। বিশেষত, খালিস্তানপন্থী জঙ্গি নেতা গোপাল চাওলার সঙ্গে তাঁর ছবি প্রকাশ্যে আসার পর স্বামীর দাবি, অবিলম্বে সিধুকে জাতীয় নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার করতে হবে। তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত করুক জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনআইএ)। সিধুর দাবি, তিনি গোপাল চাওলাকে চেনেন না। তাহলে তিনি খালিস্তান গড়ার দাবির কেন প্রকাশ্যে নিন্দা করছেন না, প্রশ্ন তুলেছেন স্বামী।