ধর্ষণকারীদের পিটিয়ে মেরে ফেলা উচিত-বললেন জয়া বচ্চন

আজবাংলা হায়দরাবাদ ধর্ষণকাণ্ডে সোমবার সংসদ তোলপাড় হয়। বিষয়টি প্রশ্নোত্তর পর্বে উত্থাপনের অনুমতি দেন অধ্যক্ষ। নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধে আরও কড়া শাস্তির সুপারিশ করেন সাংসদরা। হায়দরাবাদ গণধর্ষণ কাণ্ড নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিলেন সমাজবাদী পার্টির রাজ্যসভা সাংসদ জয়া বচ্চন। ধর্ষণকারীদের জনসমক্ষে পিটিয়ে মেরে ফেলা উচিত।

কারণ, এমন কঠোর শাস্তি দিতে হবে যা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকে” দৃশ্যতই এদিন ক্ষুব্ধ ছিলেন অমিতাভ জায়া। তিনি বলেন, “এই সংসদে দাঁড়িয়ে এ ধরনের ঘটনা নিয়ে আমি কতবার যে বলেছি, ক্ষোভ প্রকাশ করেছি তার ইয়ত্তা নেই। তা সে নির্ভয়া কাণ্ড হোক, কাঠুয়া কাণ্ড আর এখন বলছি তেলেঙ্গানার ঘটনা নিয়ে। আমার মনে হয়, জনগণ এখন সরকারের থেকে একটা সুস্পষ্ট জবাব চাইছে। আর কতদিন এমন চলবে। আর কত যন্ত্রণা কত অত্যাচার সহ্য করতে হবে মেয়েদের?” এখানেই থামেননি সমাজবাদী পার্টি নেত্রী। তিনি বলেন, “হায়দরাবাদে যে দিন এই নারকীয় ঘটনা ঘটে, তার আগের দিনই প্রায় একই রকম কাণ্ড হয়েছিল। আমার প্রশ্ন হল, পুলিশ তথা নিরাপত্তা বাহিনীর কি কোনও দায়িত্ব নেই? কেন তাঁদের দায়বদ্ধ করা হবে না। কেন ঘটনা ঘটার পর তবেই সবাই নড়ে চড়ে বসবে?” সোমবার এআইএডিএমকে-র সাংসদ বিজিলা সত্যনাথও এই গণধর্ষণের বিষয়ে বলতে গিয়ে রীতিমত ভেঙে পড়েন। ক্ষুব্ধ বিজিলা বলেন, শিশু ও মহিলাদের জন্য এই দেশ নিরাপদ নয়। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে তেলেঙ্গানা ধর্ষণকাণ্ডে অভিযুক্তদের দোষী সাব্যস্ত করে ফাঁসি দেওয়া হোক, কেন্দ্র যাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে সেই অনুরোধও করেন তিনি।এই ঘটনায় ইতিমধ্যে ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে দুজন ট্রাক চালক ও দুজন তাদের সহযোগী। বুধবার রাতে ঘণ্টাখানেক ধরে ওই ৪ অভিযুক্ত তরুণীকে ধর্ষণ করে এবং তারপর তাঁকে মেরে ফেলে। 

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!