শুরু হয়ে গেল বকর ঈদ। এই মহৎ উৎসবের পেছনে কি ইতিহাস আছে জেনে নিন

শুরু হয়ে গেল বকর ঈদ। এই মহৎ উৎসবের পেছনে কি ইতিহাস আছে জেনে নিন
আজ বাংলা      ঈদ উল আযহা শুরু হল আজ। বর্ষার শুরু থেকেই মানুষেরা ঈদ উল আযহা, যার আরেক নাম বকর ঈদের জন্য অপেক্ষা করে থাকে। সারা পৃথিবীর সব মুসলিম এই দিনটি "বলিদানের উৎসব" হিসেবে পালন করে। এই বছর করোনা ভাইরাসের কারণে উৎসবের মেজাজ খুবই কম আছে ঠিকই কিন্তু একেবারে নিভে যায়নি। বকর ঈদ জুলাইয়ের ৩১ তারিক, অর্থাৎ আজ সারা পৃথিবীতে পালন করা বলে হবে ঘোষিত করেছে সৌদি আরব। দিল্লির জামা মসজিদ শাহী ইমামের মতে যেহেতু ৩১-এ জুলাই চাঁদ দেখা যাবে না তাই ঈদ উল আযহা আগস্টের ১ তারিকে পালন করা হবে। বকর ঈদ হচ্ছে মুসলিমদের দ্বিতীয় মুখ্য উৎসব। যেমন ঈদ উল ফিতর দিয়ে সারা মাসের উপবাস অবসান বোঝায় সেইরকম বকর ঈদ দিয়ে বার্ষিক হজ তীর্থস্থান অবসর বোঝায়। ইসলাম পঁজিকার অনুযায়ী বকর ঈদের দিন ধু–আল–হিজ্জা দশতম দিনে পালন করা হয়। আজকের দিনে মুসলিমরা মসজিদে গিয়ে প্রার্থনা করে, নতুন জামা কাপড় পরে , বন্ধুবান্ধব  ও আত্মীয়দের বাড়ি গিয়ে দেখা করে। বহু মুসলিমেরা ছাগল, গরু ও ভেড়া বলিদান দেয় কুরবানি প্রতিনিধিত্ব করতে। খাবারের অল্প অংশ গরিব ও দরিদ্রদের বিতরণ করা হয়।  "ভগবান  ইব্রাহিমের কাছে ভেড়া পাঠায় নিজের ছেলের বদলে সেটা বলিদান করার জন্য", এই উৎসব এই দৃশ্যটাকে চিত্রিত করে।