রাজ্য জুড়ে পালন করা হবে রসগোল্লা দিবস

রসগোল্লা
রসগোল্লা

আজবাংলা  এবছরের ৫ জুলাই ইকো পার্কে মিষ্টি হাবের উদ্বোধন হয়েছে। রাজ্যের সেরা মিষ্টি বিক্রেতাদের এক ছাতার তলায় আনার চেষ্টা করা হয়েছে সরকারি উদ্যোগে। আগামী ১৪ নভেম্বর রাজ্য জুড়ে পালন করা হবে রসগোল্লা দিবস। গতবছর এই দিনেই পশ্চিমবঙ্গের রসগোল্লা জিআই বা জিওগ্রাফিক্যাল আইডেন্টিফিকেশন ট্যাগ পায়। তার বর্ষপূর্তিতেই এই নতুন উদ্যোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের। সেদিন রসগোল্লা নিয়ে আয়োজন করা হয়েছে  আলোচনাসভার। রসগোল্লা দিবস’ পালনের আর্জি জানাচ্ছেন বিশিষ্ট মিষ্টান্ন গবেষক হরিপদ ভৌমিক। ২০১৫ সালের উল্টোরথের দিন ওড়িশা রসগোল্লা দিবস পালন করে। দাবি জানায় রসগোল্লা তাদের। ওড়িশা রসগোল্লা নিয়ে দাবি জানানোর পর রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আবেদন জানানো হয়। রসগোল্লার ওপর তাঁর গবেষণামূলক ‘রসগোল্লা বাংলার জগত্‍ মাতানো আবিষ্কার’ বইটি অন্যতম প্রামাণ্য দলিল। এরপর রসগোল্লার বিষয়ে তথ্য দেওয়া, বহু নথি, প্রাচীন বই অনুবাদ করে আন্তর্জাতিক ফোরাম জিআই কর্তৃপক্ষকে দেওয়া। এরপর বিদেশ থেকে ১৪ জনের দল ভারতে আসে। যাচাই করতে তারা বাংলার পাশাপাশি ওড়িশাতেও যায়। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আধিকারিক মহুয়া হোমচৌধুরি ‘অডিও ভিস্যুয়াল প্রেজেন্টেশন’ দেন। সব বাধা-বিপত্তি কাটিয়ে অবশেষে ছানার রসগোল্লা বাংলার হয়। তাই আগামী ১৪ নভেম্বর রাজ্য জুড়ে পালন করা হবে রসগোল্লা দিবস।