করোনার টিকার তথ্য চুরির অভিযোগ রাশিয়ার বিরুদ্ধে

করোনার টিকার তথ্য চুরির অভিযোগ রাশিয়ার বিরুদ্ধে
আজবাংলা    সাইবার হামলা চালিয়ে করোনা টিকা তৈরির পদ্ধতি চুরি করছে রাশিয়া। গুরুতর অভিযোগ তুলল ব্রিটেন, আমেরিকা এবং কানাডা। অভিযোগ, পুতিন সরকারের গোয়েন্দা দপ্তরের মদতেই রাশিয়ার দু’‌টি হ্যাকিং গ্রুপ এই হামলা চালাচ্ছে। কোভিড ভ্যাকসিনের খোঁজ চালাচ্ছে বহু দেশ। ভ্যাকসিন তৈরির গবেষণার সঙ্গে যুক্ত সেইসব ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার নথি ঘাঁটাঘাঁটি করছে হ্যাকিং গ্রুপ এপিটি–২৯। ‘‌কোজি বিয়ার’ নামেও পরিচিত গ্রুপটি। তিন দেশের গোয়েন্দা দপ্তরই বৃহস্পতিবার জানিয়েছে‌, গবেষণার কাজে বাধা দিতে নয়, বরং গবেষণা সংক্রান্ত তথ্য চুরি করতেই বারবার হামলা চালাচ্ছে হ্যাকাররা। ব্রিটেনের জাতীয় সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার জানাচ্ছে, সত্যিই কোনও তথ্য চুরি হয়েছে কিনা, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে মনে করা হচ্ছে, কোনও গবেষকের ব্যক্তিগত গোপন তথ্য চুরি যায়নি। ওয়াশিংটনই জানিয়েছে, সাইবার হামলার পেছনে রয়েছে ‘‌কোজি বিয়ার’ এবং ‘‌ফ্যান্সি বিয়ার’ নামে দু’‌টি হ্যাকিং গ্রুপ‌‌। ২০১৬ সালে মার্কিন মুলুকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময়ে ডেমোক্র‌্যাটিক ন্যাশনাল কমিটির কম্পিউটার নেটওয়ার্কে হামলা চালিয়ে অনেক ইমেল নাড়াচাড়া করে দেখেছিল এই ‘‌কোজি বিয়ার’ গ্রুপটি। ‌তবে সাইবার হামলার বিষয়ে প্রেসিডেন্ট পুতিন আদৌ জানেন কিনা, তা স্পষ্ট নয়। তবে অন্য দেশের গবেষণার তথ্য চুরি করে আনতে পারলে পিঠ চাপড়ানি মিলবে, মনে করছেন গোয়েন্দারা। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেছেন,‘যারা করোনা মহামারি মোকাবিলায় কাজ করছে তাদেরকেই রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থাগুলো টার্গেট করছে যা অগ্রহণযোগ্য।’ রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ বলেছেন, ‘কারা গ্রেট ব্রিটেনের ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি ও গবেষণা কেন্দ্রগুলো হ্যাক করতে পারে সে ব্যাপারে কোনো তথ্য আমাদের কাছে নেই। আমরা একটি বিষয় বলতে পারি- এই চেষ্টার সঙ্গে রাশিয়ার কোনো সম্পর্কই নেই।’